পবিত্র আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ পালনে মুসলিম বিশ্বের সরকারগুলোকে বিশেষ মনোযোগী হতে হবে


পবিত্র ছফর মাস উনার শেষ ইয়াওমুল আরবিয়া বা বুধবার দিন ইসলামের ইতিহাসে একটি উল্লেখযোগ্য তাৎপর্যময় ঘটনার ঐতিহাসিক দিন। এ সম্পর্কে একমতে বর্ণিত আছে, মাহবুব-ই ইলাহী হযরত নিযামুদ্দীন আউলিয়া রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার শায়েখ হযরত বাবা ফরিদউদ্দিন মাসউদ গঞ্জে শকর রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার বরাতে উল্লেখ করেন, পবিত্র ছফর মাস শেষ ইয়াওমুল আরবিয়া বা বুধবার দিন হযরত নূহ আলাইহিস সালাম উনার অবাধ্য ক্বওমকে ধ্বংস করা হয়েছিল।
এছাড়া হযরত আম্বিয়া আলাইহিমুস সালাম উনাদের অনেক ঘটনার জামে হলো এই পবিত্র ছফর মাস এবং ‘আখিরী চাহার শোম্বাহ’ শরীফ উনার দিন। তবে উম্মতে হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মাঝে এই আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, ফযীলতপূর্ণ এবং স্মরণীয় এজন্য যে, আখিরী নবী, নবী আলাইহিমুস সালাম উনাদের নবী, রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের রসূল, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি অনেকদিন মারীদ্বি শান মুবারকে থাকার পর এদিন সকাল বেলা ছিহহাতি শান মুবারক প্রকাশ করেন। এতে হযরত উম্মুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম, হযরত আহলে বাইত আলাইহিমুস সালাম উনাদের সম্মানিত সদস্যগণ এবং হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুমগণ উনারা যে খুশি প্রকাশ করেছেন; সেই খুশি প্রকাশের দিনকেই মুসলিম উম্মাহ পবিত্র ‘আখিরী চাহার শোম্বাহ’ শরীফ হিসেবে উদযাপন করে আসছেন।
তাই তো বর্তমান যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি আম-খাছ নির্বিশেষে সকল মুসলমান থেকে শুরু করে শাসকগোষ্ঠীকে আহবান জানাচ্ছেন- পবিত্র ছফর মাসের বিশেষ দিন পবিত্র ‘আখিরী চাহার শোম্বাহ’ শরীফ উনার গুরুত্ব উপলব্ধি করে এদিন সরকারি ছুটিসহ শরীয়তসম্মত আনন্দ খুশির ব্যবস্থা করার জন্য।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে