পবিত্র কুরআন শরীফ এবং পবিত্র সুন্নাহ শরীফ উনাদের দৃষ্টিতে পবিত্র কুরবানী


 

খ্বালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন-
انا اعطينك الكوثر فصل لربك وانحر
অর্থ: “হে আমার হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আমি আপনাকে কাওছার বা বহু কল্যাণ হাদিয়া করেছি। অতএব, আপনি আপনার প্রতিপালকের জন্য নামায পড়–ন এবং কুরবানী করুন।”
পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন-
افضل العبادات يوم العيد عراقة دم القربان
অর্থ: “পবিত্র ঈদুল আদ্বহা উনার দিন কুরবানীর পশুর রক্ত প্রবাহিত করা অর্থাৎ পশু যবেহ করা সর্বশ্রেষ্ঠ আমল।” সুবহানাল্লাহ!
খ¦ালিক মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন-
لن ينال الله لحومها ولا دمائها ولكن يناله التقوى منكم
অর্থ: “পবিত্র কুরবানীর পশুর গোশ্ত ও রক্ত কোনোকিছুই মহান আল্লাহ পাক উনার নিকট পৌঁছে না। শুধু তাক্বাওয়াই পৌঁছে থাকে।” সুবহানাল্লাহ!
পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে আরো ইরশাদ মুবাক হয়েছে, “পবিত্র ঈদুল আদ্বহা উনার দিনে কুরবানীর পশুর রক্ত গোশ্ত মাটিতে পড়ার পূর্বেই মহান আল্লাহ পাক তিনি বান্দার গুনাহখাতা মাফ করে দেন।” সুবহানাল্লাহ!
মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদের সকলকে পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র সুন্নাহ শরীফ মুতাবিক কুরবানী করার তাওফীক দান করুন। আমীন!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে