পবিত্র কুরবানী নিয়ে কোন পদক্ষেপ নেয়ার পূর্বে সরকারকে ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিতে হবে


সরকারী আমলারা ইসলামবিদ্বেষীদের প্ররোচনায় পবিত্র কুরবানীর পশুর হাট কমানো, ঢাকা শহরের বাইরে জনশূন্য এলাকায় হাট বসানো, পরিচ্ছন্নতার মিথ্যা অজুহাতে কুরবানীর পশু জবাইয়ের স্থান নির্দিষ্ট করার মতো জঘন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এই পদক্ষেপের কারণে এদেশের মুসলমানরা পবিত্র কুরবানী করতে সমস্যার সম্মুখীন হবে, যা স্পষ্ট যুলুম।
প্রসঙ্গত, ইতিহাসের দিকে তাকালে আমরা দেখতে পাই- নমরূদ ১৭০০ বছর, শাদ্দাদ ১০০০ বছর, ফিরআউন ৪০০ বছর হায়াত পেয়েও মহান আল্লাহ পাক উনার বিধিবিধানের বিরোধিতা করার কারণে তারা ধ্বংস হয়ে চিরজাহান্নামী হয়ে গেছে।
আমাদের দেশের স্বাধীনতাযুদ্ধে পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী সেনবাহিনী থাকা সত্ত্বেও পাকিস্তান পরাজিত হয়েছে। গরু কুরবানী বন্ধে যালিম শাসক গৌরগোবিন্দ জোর-যুলুম করার কারণে টিকে থাকতে পারেনি। সুতরাং বর্তমান সরকারকে এ সমস্ত বিষয়গুলি থেকে শিক্ষা নিতে হবে।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে