পবিত্র লাইলাতুম মুবারাকাহ বা ‘লাইলাতুল বরাত’ কি কি নামে পরিচিত


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার পবিত্র সূরা ‘আদ দুখান’ শরীফ উনার ৩, ৪ নম্বর পবিত্র আয়াত শরীফে ‘শবে বরাত’কে ‘লাইলাতিম মুবারকাতিন’ (বরকতপূর্ণ রাত) হিসেবে উল্লেখ করে ইরশাদ মুবারক করেন- “নিশ্চয়ই আমি উহা (পবিত্র কুরআন শরীফ) এক বরকতপূর্ণ রাত্রিতে নাযিল করেছি। অর্থাৎ নাযিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। নিশ্চয়ই আমি সতর্ককারী, ওই পবিত্র রাত্রিতে সমস্ত হিকমত পূর্ণ কাজসমূহের বণ্টন করা হয় তথা বণ্টনের ফায়ছালা করা হয়।”
এই পবিত্র রাত্রির আরো অনেক নাম মুবারক রয়েছে। যেমন-
(১) লাইলাতুন নিছফি মিন শা’বান অর্থাৎ অর্ধ শা’বানের রজনী।
(২) লাইলাতুল ক্বিসমাহ অর্থাৎ ভাগ্য রজনী বা ভাগ্য বণ্টনের রাত্রি।
(৩) লাইলাতুত তাকফীর অর্থাৎ গুনাহখতা ক্ষমা বা কাফফারার রাত্রি।
(৪) ‘লাইলাতুল ইজাবাহ’ অর্থাৎ দোয়া কবুলের রাত্রি।
(৫) লাইলাতুল হায়াহ অর্থাৎ হায়াত বা আয়ু বৃদ্ধির রাত্রি।
(৬) লাইলাতু ঈদিল মালায়িকাহ অর্থাৎ হযরত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনাদের ঈদের রাত্রি।
(৭) লাইলাতুল বারাআহ অর্থাৎ মুক্তির রাত্রি বা নাযাত বা সৌভাগ্যলাভের রাত্রি ।
(৮) লাইলাতুত তাজবীয অর্থাৎ বিধান সাব্যস্ত করার রাত্রি।
(৯) লাইলাতুল ফায়ছলাহ অর্থাৎ সিদ্ধান্ত নেয়ার রাত্রি।
(১০) লাইলাতুছ ছক্ক অর্থাৎ ক্ষমা স্বীকৃতি দানের রাত্রি।
(১১) লাইলাতুল জায়িযাহ অর্থাৎ মহা পুরস্কারের রাত্রি।
(১২) লাইলাতুর রুজহান অর্থাৎ পরিপূর্ণ প্রতিদানের রাত্রি।
(১৩) লাইলাতুত তা’যীম অর্থাৎ সম্মান হাছিলের রাত্রি।
(১৪) লাইলাতুত তাক্বদীর অর্থাৎ তক্বদীর নির্ধারণের রাত্রি বা ভাগ্য নির্ধারণের রাত্রি।
(১৫) লাইলাতুল গুফরান অর্থাৎ ক্ষমা প্রাপ্তির রাত্রি।
(১৬) লাইলাতুল ইতক্বি মিনান্ নার অর্থাৎ জাহান্নামের আগুন থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার রাত্রি।
(১৭) লাইলাতুল আফউয়ি অর্থাৎ অতিশয় ক্ষমা লাভের রাত্রি।
(১৮) লাইলাতুল কারাম অর্থাৎ অনুগ্রহ হাছিলের রাত্রি।
(১৯) লাইলাতুত তাওবাহ অর্থাৎ তওবা কবুলের রাত্রি।
(২০) লাইলাতুন নাদাম অর্থাৎ কৃত গুনাহ স্মরণে লজ্জিত হওয়ার রাত্রি।
(২১) লাইলাতুয্ যির্ক অর্থাৎ যিকির আযকার করার রাত্রি।
(২২) লাইলাতুছ ছলাহ অর্থাৎ নামায আদায়ের রাত্রি।
(২৩) লাইলাতুছ ছদাক্বাহ অর্থাৎ দানের রাত্রি।
(২৪) লাইলাতুল খইরাত অর্থাৎ নেক কাজ সম্পাদনের রাত্রি।
(২৫) লাইলাতু ইনযালির রহমাহ অর্থাৎ রহমত নাযিলের রাত্রি।
(২৬) লাইলাতু ছলাতিউঁ ওয়া সালামিন আলা সাইয়্যিদিল মুরসালীনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অর্থাৎ সাইয়্যিদুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মুবারক শানে ছলাত ও সালাম মুবারক পাঠের রাত্রি।
এছাড়াও ‘পবিত্র শবে বরাত’ উনার আরো অনেক নাম মুবারক রয়েছে। সুবহানাল্লাহ!

Views All Time
1
Views Today
3
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে