পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার অন্যতম উত্তম আমল; মুসলমানদের জন্য খাছভাবে দোয়া করা আর কাফিরদের জন্য কঠিন বদদোয়া করা


সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার মাহফিলে যে কোন দোয়া নিঃসন্দেহে মকবুল। এজন্য মুসলমানদের মুক্তির জন্য এবং বিপদ থেকে হিফায়েতর জন্য বিশেষ দোয়া করা কর্তব্য। আর সকল সন্ত্রাসী কাফির মুশরিকদের বিরুদ্ধে কঠিন বদদোয়া করাও ঈমানের দাবী। মুসলমানদেরকে নিয়ে কাফির মুশরকিদের ষড়যন্ত্র নতুন কোন বিষয় নয়। কাফির মুশরিকরা চায় সমস্ত মুসলমানদের ক্ষতি করতে, যুলুম নির্যাতন করতে। তারা যেন কোনরূপ ক্ষতি করতে না পারে সেজন্য সারা বিশ্বের সকল মুসলমানদের জন্য দোয়া করতে হবে, এটা মুসলমানদের একান্ত দায়িত্ব ও কর্তব্য। সকলকে বলতে হবে-
اَلَّلهُمَّ أغْفِرْلِيْ وَلِلْمُؤْمِنِيْنَ وَالْمُؤْمِنَآتِ وَالْمُسْلِمِيْنَ وَالْمُسْلِمَآتِ
অর্থ: “আয় বারে এলাহী মহান আল্লাহ পাক! আপনি আমার ও সমস্ত মু’মিন নর-নারীর এবং সমস্ত মুসলমান পুরুষ ও মহিলাদের পাপসমূহ মোচন করে দিন।” আবার কাফিরদের বিরুদ্ধে বিজয়ী হওয়ার দোয়া করতে হবে:
رَبَّنَا اغْفِرْ لَنَا ذُنُوبَنَا وَإِسْرَافَنَا فِي أَمْرِنَا وَثَبِّتْ أَقْدَامَنَا وَانصُرْنَا عَلَى الْقَوْمِ الْكَافِرِينَ
অর্থ: আয় বারে এলাহী মহান আল্লাহ পাক আমাদের গুনাহ এবং কোন কাজের সীমালঙ্ঘনকে আপনি ক্ষমা করুন, আমাদের ঈমান দৃঢ় রাখুন এবং কাফিরদের বিরুদ্ধে আমাদের বিজয়ী করুন। (পবিত্র সূরা ইমরান শরীফ; ১৪৭)
আরো দোয়া করতে হবে এভাবে-
رَّبَّنَا عَلَيْكَ تَوَكَّلْنَا وَإِلَيْكَ أَنَبْنَا وَإِلَيْكَ الْمَصِيرُ-رَبَّنَا لَا تَجْعَلْنَا فِتْنَةً لِّلَّذِينَ كَفَرُوا وَاغْفِرْ لَنَا رَبَّنَا ۖ إِنَّكَ أَنتَ الْعَزِيزُ الْحَكِيمُ
অর্থ: হে! আমাদের রব তায়ালা! আমরা আপনারই ওপর নির্ভর করছি, আপনারই অভিমুখী হয়েছি এবং প্রত্যাবর্তন তো আপনারই কাছে। হে আমাদের মালিক! আপনি আমাদেরকে কাফিরদের নিপীড়নের পাত্র করবেন না। হে আমাদের রব তায়ালা! আপনি আমাদের ক্ষমা করুন; আপনি তো পরাক্রমশালী ও মহান প্রজ্ঞাময়। (পবিত্র সুরা মুমতাহিনা শরীফ: ৪-৫)
যেহেতু কাফির মুশরিককরা মুসলমানদেরকে নির্যাতন ও যুলুম করছে। তাই প্রথমে তাদের জন্য হিদায়েত চাইতে হবে তারপর কঠিন বদদোয়া করতে হবে। অথচ তারা মুসলমান না হলে তাদের থাকারই কোন অধিকার নেই? কারণ পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেছেন-
أَخْرِجُوا الْمُشْرِكِينَ مِنْ جَزِيرَةِ الْعَرَبِ
অর্থ: তোমরা আরব যমীন থেকে কাফির মুশরিকদের বের করে দাও। (বুখারী শরীফ)
ক্বইয়্যুমুয যামান, সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, নূরে মুকাররম, হাবীবুল্লাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কূল মাখলুকাতের শ্রেষ্ঠতম ইমাম ও মুজতাহিদ, যামানার লক্ষ্যস্থল আওলাদে রসূল আহলে বাইত ওলীআল্লাহ, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি তাজদীদ মুবারক করে আরো ইরশাদ মুবারক করেছেন-
أَخْرِجُوا الْمُشْرِكِينَ مِنْ جَزِيرَةِ الْعَرَبِ وَالْعَزَمِ

অর্থ: তোমরা আরব এবং অনারব তথা সমস্ত দুনিয়ার যমীন থেকে কাফির মুশরিকদের বের করে দাও।
কাজেই বর্তমানে কাফির মুশরিকরা সারা বিশ্বে মুসলমানদের উপর যে যুলুম নির্যাতন করছে তাতে এখনো তাদের থাকার অধিকার নেই। তাদেরকে আরব অনারব তথা পৃথিবী থেকে বের করে দিতে হবে। যেহেতু সরাসরি জিহাদ করা ও বের করে দেয়া সম্ভব হচ্ছেনা সেহেতু তাদের বিরুদ্ধে কঠিন বদদোয়া করতে হবে। আর এজন্য আর উচ্চ ও শক্ত আওয়াজে উচ্চকন্ঠে বলতে হবে:-

اَللّٰهُمَّ اَهْلِكِ الْكَفَرَةَ وَالْفَسَقَةَ وَالْفَجَرَةَ وَالْـمُبْتَدِعَةَ وَالْـمُشْرِكِيْنَ. اَللّٰهُمَّ شَتِّتْ شَـمْلَهُمْ. اَللّٰهْمَّ مَزِّقْ جَـمْعَهُمْ. اَللّٰهُمَّ دَمِّرْ دِيَارَهُمْ. وَاخْذُلْ مَنْ خَذَلَ الْـمُسْلِمِيْنَ وَاخْذُلْ مَنْ خَذَلَ دِيْنَ سَيِّدِنَا حَبِيْبِنَا صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ

“আল্লাহুম্মা আহলিকিল কাফারাতা ওয়াল ফাসাক্বাতা ওয়াল মুবতাদ্বিয়াতা ওয়াল মুশরিকীন। আল্লাহুম্মা শাত্তিত শামলাহুম, আল্লাহুম্মা মাযযিক্ব যাময়াহুম, আল্লাহুম্মাদ্বাম্মির দ্বিয়া রাহুম। ওয়াখ যুলমান খাজালাল মুসলিমীন, ওয়াখ যুলমান খাজালা দ্বীনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।”
মহান আল্লাহ পাক তিনি সবাইকে সেই তাওফীক দান করুন।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে