পবিত্র হজ্জ করার সময় ছবি তোলা বন্ধ করুন


পবিত্র হজ্জ উনার সময় নাফরমানীমূলক কাজ থেকে বিরত থাকা ব্যতীত মকবুল পবিত্র হজ্জ বা খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার ও উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের সন্তুষ্টি মুবারক নেই। সেটাই মহান আল্লাহ পাক কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “যে ব্যক্তি পবিত্র হজ্জ করার ইচ্ছা পোষণ করে সে যেন অশ্লীল-অশালীন বেপর্দা-বেহায়া, হারাম-নাজায়িয ইত্যাদি কাজ থেকে বিরত থাকে।” অর্থাৎ খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র হজ্জ করতে নির্দেশ মুবারক করেছেন আর খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি বলেছেন, “তোমরা যারা পবিত্র হজ্জ করবে তাদের জন্য হারাম কাজ করা যাবে না।”
এখানে ফিকিরের বিষয়, যেখানে খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনিই বান্দাকে শিক্ষা দিলেন যে, পবিত্র হজ্জ করতে হলে হারাম কাজ করা যাবে না। সেক্ষেত্রে বর্তমান পদ্ধতিতে কিভাবে হাজার হাজার হারাম কাজ করে দ্বীন ইসলাম উনার বুনিয়াদ ‘পবিত্র হজ্জ’ পালন করা যাবে?
অপরদিক থেকে ছবি তোলা হারাম। স্বয়ং খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি অসংখ্যবার নিষেধ করেছেন। যেমন নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেছেন, “কিয়ামতের দিন ওই ব্যক্তির সবচাইতে বেশি শাস্তি হবে যে ছবি তুলে, আঁকে এবং রাখে।” (বুখারী শরীফ)
পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে অসংখ্য নিষেধাজ্ঞার পরেও কোনো উম্মতের পক্ষে খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে হাজার হাজার ছবি তুলে তথা হারাম কাজ করে পবিত্র হজ্জ করা জায়েজ হতে পারে না।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে