পবিত্র ১৪ই যিলক্বদ শরীফ উনার সুমহান সম্মানার্থে- সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম উনার তোহফায় মামদূহজী ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনাকে পরিপূর্ণভাবে ধারণ করা সম্ভব


দুর্বল, অযোগ্য, অথর্ব, নির্জীব ও বারবার হোঁচট খাওয়া সালিকের প্রতি সীমাহীন রহমতী নজর মুবারক দিয়ে যিনি অনায়াসে মামদূহজী ক্বিবলা ও সম্মানিত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের কাছে সুপারিশ করে দুর্বল থেকে সবল, অযোগ্য থেকে যোগ্য, অথর্ব থেকে সচল, নির্জীব থেকে সজীব বানিয়ে দেন; তিনি তো আমাদের প্রাণপ্রিয় হায়দারী নকশা, বাবুল ইলম ওয়াল হিকাম, ফকরে মামদূহ, ফকরে আম্মাজী, সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম। সুবাহানাল্লাহ!
তিনি এমন এক অযুদ পাক, যিনি মামদূহজী ও সম্মানিত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে পরিপূর্ণভাবে ধারণ করে আছেন। শুধু তাই নয়, উনার অভিপ্রায় এমন যে- আমরা সকলে যেন মামদূহজী ক্বিবলা ও সম্মানিত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে পরিপূর্ণভাবে ধারণ করি। সুবাহানাল্লাহ! শয়তানী কব্জা থেকে বের করে তিনি মুর্শিদী কব্জায় টেনে নিয়ে আসেন। মালাউন ইবলিস ও তার দোসর কাফির, মুশরিক, মুনাফিক, উলামায়ে সূ’রা আমাদেরকে বিভ্রান্ত করে মামদূহজী ক্বিবলা উনাকে কষ্ট দিবে; আবার শান-মানের খিলাফ করে কষ্ট দিবে- এটা তিনি বরদাশত করতে পারেন না। তাই তো তিনি আমাদের পরিশুদ্ধ করে দিবেনই দিবেন- এটাই উনার পণ। সেই লক্ষ্যেই উনার রাত দিন পরিশ্রম।
একদিকে উনার মুর্দা জিন্দা হওয়ার ন্যায় শক্ত তালীম-তালক্বীন, অন্যদিকে আমাদের জন্য মামদূহজী ক্বিবলা ও আহলু সম্মানিত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের কাছে সুপারিশ করে দোয়া করা। আমাদের দুঃখ-কষ্টগুলো উনার কাছে বেদনাদায়ক। তিনি আমাদের চরম পরম হিতাকাঙ্খী।
হে প্রাণের আক্বা ক্বিবলা কা’বা! সুলত্বানিন নাছির, আহলু বাইতে আকবর, আস সাফফাহ মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম! আমরা সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম উনার শুকরিয়া আদায় করতে অক্ষম। আমরা উনার ক্বদর করতে পারতেছি না! সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম উনার সম্মানার্থে তওবা করে শুকরিয়া আদায় করার তাওফীক দান করুন এবং আপনাদেরকে পরিপূর্ণ ধারণ করার তাওফীক দান করুন। আমীন!

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে