পহেলা বৈশা্খ পবিত্র দ্বীন ইসলামী কোন অনুষঙ্গ নয়


আসন্ন পহেলা বৈশাখ পবিত্র দ্বীন ইসলামী কোনো অনুষঙ্গ নয়। কারণ পহেলা বৈশাখ হলো হিন্দু, মজুসী, মুশরিকদের ধর্মীয় অনুষঙ্গ। উল্লেখ্য যে, ফসলী সন তথা বাংলা সনের প্রথম দিন পহেলা বৈশাখ মূলত বিজাতী-বিধর্মীদের উৎসব। পহেলা বৈশাখের আগের দিন চৈত্র সংক্রান্তি পূজা আর পহেলা বৈশাখ হলো ঘটপূজা, গণেশপূজার দিন। বৌদ্ধরা এইদিনে উল্কি পূজা করে। মজুসীরা (অগ্নি উপাসকরা) এই দিন নওরোজ উৎসব পালন করে। উপজাতিরা বৈশাখী অনুষ্ঠান পালন করে থাকে। তাহলে সহজেই অনুমেয় যে, পহেলা বৈশাখে মুসলমানদের কোনো অংশগ্রহণ নেই।

তাই কোনো মুসলমানগণ এই হারাম পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে যেতে পারেনা। বিধর্মীরা মুসলমানদের কোনো অনুষ্ঠানে আসে না, তাহলে মুসলমানরা কেনো বিধর্মীদের অনুষ্ঠানে যাবে? আর কস্মিনকালেও বিধর্মীদের অনুষ্ঠানে যাওয়া, উপভোগ করা জায়িয নেই বরং হারাম। তাই মুসলমান নামধারীরা যারা পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে যেয়ে থাকে তাদেরকে তওবা করে ফিরে আসতে হবে। মনে রাখতে হবে যে, প্রত্যেক নফসকেই মৃত্যুবরণ করতে হবে। আর মুসলমানদেরকে অবশ্যই পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার মধ্যে পরিপূর্ণ দাখিল হতে হবে। তাই যারা এই পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান যায় তাদেরকে উদাত্ত আহব্বান করছি পবিত্র দ্বীন ইসলামে ফিরে আসার জন্য। পবিত্র হাদীছ শরীফে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “যে জাতি যার সাথে মিল-মুহব্বত রাখবে সে তাদের অন্তর্ভুক্ত হয়ে যাবে অর্থাৎ তার হাশর-নশর তার সাথে হবে।”

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে