পিরিয়ডের সময় মেয়েদের বাড়ি থেকে বের করে দেয় হিন্দুরা


ভারতের সমস্ত রকম মিডিয়াতে একটি খবর এখন ভীষণভাবে প্রচারিত হয়, সেটা হল – কোর্টের রায় সত্বেও কেরালার শবরীমালা মন্দিরে পিরিয়ড হওয়ার বয়সী কোন মেয়েকে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

 

এর কারণ কেউ খুঁজতে চেয়েছেন কি ?

 

আমি জানিয়ে দিই এর কারণ। মেয়েদের পিরিয়ড হওয়াকে হিন্দুরা ভীষণ ঘৃণা করে, পিরিয়ডের সময় তাদেরকে ঘরের কোন কাজ করা তো দূরের কথা, মেয়েদের বাড়ি থেকে বার করে দেয় হিন্দুরা। বাড়ির বাইরে, কোথাও বা গ্রামের বাইরে একটি ছোট্ট কুটিরে সেই মেয়েদের থাকতে হয় যত দিন না পিরিয়ড শেষ হয়। এই ছোট্ট কুটিরকে ইংরাজী মিডিয়াতে “Period Hut” বলে।

 

অবাক লাগে এমন অমানবিক ব্যবহারের পরেও হিন্দু মেয়েরা হিন্দু ধর্মে পড়ে থাকে।

 

আমি উদাহরণ স্বরূপ কয়েকটা তথ্য সূত্র দেবো প্রমাণ করার জন্য যে হিন্দু মেয়েদের পিরিয়ডের সময় তাদের বাড়ি থেকে বার করে দেয় হিন্দুরা।

 

প্রমাণ – ১

 

স্থান – তামিলনাডু

 

নিউজ লিঙ্ক – http://bit.ly/HinduPeriodHut1 – বিবিসি নিউজ

 

হেডলাইন – Cyclone Gaja: India girl segregated during period dies

 

২১শে নভেম্বর ২০১৮ তামিলনাডুতে আঘাত হানে সাইক্লোন “গজ” , তখন একটি নিউজ আমার চোখে আটকে যায়, সেটা হল – সাইক্লোনে ১২ বছরের একটি মেয়ের মৃত্যু হয়েছে যে “পিরিয়ড হাট” –এ অবস্থান করছিল। অর্থাৎ পিরিয়ডের সময় মেয়েদের বাড়ি থেকে বের করে দেয় হিন্দুরা, যতক্ষণ না পিরিয়ড শেষ হয় তাদেরকে সেখানেই থাকতে হয় সমস্ত রকম সুবিধাবঞ্চিত ভাবে।

 

নিউজ থেকে চুম্বক অংশটা তুলে দিই এইখানে –

 

“Veerasena, a local social activist, said both rich and poor families followed the tradition of forcing girls to sleep separately while they were menstruating.”

 

অর্থাৎ বীরাসেনা নামে একজন স্থানীয় সমাজকর্মী জানায় যে ধনী হোক বা গরীব, এখানের হিন্দু সমাজের রীতি মেনে পিরিয়ডের সময় মেয়েদের বাড়ির বাইরে আলাদাভাবে শুতে বাধ্য করে।

 

প্রমাণ – ২

 

স্থান – নেপাল

 

নিউজ লিঙ্ক – http://bit.ly/HinduPeriodHut2 – জি নিউজ

 

হেডলাইন – Shunned during her periods to a ‘menstruation hut’, woman dies of suffocation

 

নেপালে হিন্দু মেয়েদের বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয় পিরিয়ডের সময়। এই সময় তারা বাড়ির বাইরে , গোয়াল ঘরে বা গ্রামের বাইরে একটি ঘরে অবস্থান করে , এই প্রথাকে বলা হয় “ চৌপড়ী ” (Chhaupadi) ।

 

নিউজ থেকে চুম্বক অংশ তুলে দেওয়া যাক –

 

“The Supreme Court of Nepal ordered an end to chhaupadi, which is linked to Hinduism, in 2005. But it is still practiced in many of Nepal’s isolated villages, particularly in the west.”

 

অর্থাৎ সুপ্রিম কোর্ট হিন্দু ধর্মের সাথে সম্পর্কিত “ চৌপড়ী ” তুলে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ২০০৫ সালে, কিন্তু নেপালের পশ্চিম নেপাল ও নেপালের গ্রামের দিকে হিন্দু ধর্মের সাথে সম্পর্কিত এই প্রথা এখনো পালিত হয়।

 

স্থান – মহারাষ্ট্র

 

নিউজ লিঙ্ক – http://bit.ly/HinduPeriodHut3 – দ্য গার্ডিয়ান

 

হেডলাইন – Banished for menstruating: the Indian women isolated while they bleed

 

মহারাষ্ট্রেও মেয়েদের পিরিয়ডের সময় বাড়ি থেকে বার করে দেয় এবং তাদেরকে গ্রামের বাইরে একটা জায়গাতে থাকতে হয়, সেই জায়গাকে বলা হয় – “গাঁওকর” ।

 

নিউজ থেকে চুম্বক অংশ তুলে দেওয়া যাক –

 

“We visited 223 gaokors in tribal areas and nearly 98% lack even a proper bed, leave alone electricity and other basic amenities. Most of the gaokors have temporary bathrooms made with bamboo,” says Dr Dilip Barsagade, the founder of local NGO Society of People’s Action in Rural Services and Health (Sparsh), which recently brought the practice to the attention of the National Human Rights Commission (NHRC).

 

অর্থাৎ সমাজকর্মীরা ২২৩ টা গাঁওকর ঘুরে দেখেছে যে ৯৮% ক্ষেত্রে কোন বিছানা, ইলেক্ট্রিসিটি ও অন্যান্য নিত্য প্রয়োজনীয় সুযোগ সুবিধা নেই।

এমন অগণিত উদাহরণ আপনারা পাবেন গুগল করলেই, তাই আর উদাহরণ দিলাম না।

 

হিন্দু মেয়েরা এই ভাবে অমানবিক জীবন যাপন করে তাদেরকে পিরিয়ডের কারণে বাইরে বের করে দেওয়ার কারণে। হিন্দু মেয়েরা মারাও যায় এর ফলে, সাপের কামড়ে , বন্য জন্তুর আক্রমণে অথবা ধর্ষিতা হয়।

 

ইহুদীদের মধ্যেও এই একই প্রথা আছে, তারাও পিরিয়ডের সময় মেয়েদের বাড়ি থেকে বাইরে বের করে দেয়, বাড়ির বাইরে একটি কুটিরে তাদেরকে থাকতে হয়। সেই কুটিরকে বলা হয় – “নিদ্দাহ” (Niddah) ।

Views All Time
2
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+