প্রচন্ড তুষারপাতে বিপর্যস্ত বৃটেনে দুই সপ্তাহেই ৫০০০ লোকের মৃত্যু


যুক্তরাজ্যে গত পাঁচ দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ শৈত্যপ্রবাহ বইছে এবারের শীত মওসুমে। শীতকাল গিয়ে বসন্ত শুরচ হলেও এখনও তীব্রতা কমেনি শীতের। পুরো যুক্তরাজ্যই যেন বরফের দেশে পরিণত হয়েছে। দেশটির আবহাওয়া অফিস বলছে, ১৯৬৪ সালের পর এতো বেশি শীতের প্রকোপে পড়তে হয়নি যুক্তরাজ্যবাসীকে। গত ফেব্রচয়ারি ও মার্চের প্রথম দুই সপ্তাহ মিলিয়ে দেশটিতে অন্তত ৫০০০ লোকের মৃত্যু হয়েছে। যাদের বেশির ভাগই শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। যুক্তরাজ্যের আবহাওয়াবিদরা হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, পরিস্থিতি আরো প্রকট আকার ধারণ করতে পারে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বিগত পাঁচ বছরের গড় মৃত্যুর তুলনায় শুধু মার্চের প্রথম দুই সপ্তাহেই অতিরিক্ত ২০০০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর গত ফেব্রচয়ারি মাসে মারা গেছে অতিরিক্ত ৩,০৫৭ জন। তুষারপাত ও শৈত্যপ্রবাহের ফলে পুরো যুক্তরাজ্যে বিদ্যুৎ ও যোগাযোগ ব্যবস্থা কার্যত ভেঙে পড়েছে। এই শীত অব্যাহত থাকলে আরো কয়েক হাজার লোক মারা যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। যুক্তরাজ্যের দাতব্য সংস্থা ‘এইজ ওল্ড’ এর পরিচালক মিশেলি মিটচেল জানায়, প্রতিবছর শুধু শীতকালেই প্রায় ২৬,০০০ লোক মারা যায়। অসহনীয় শীতের কারণে মানুষের হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের মতো রোগ বৃদ্ধি এবং শীতজনিত রোগাক্রান্ত হয়েই এসব মৃত্যু হয়ে থাকে। এদিকে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ায় স্কটল্যান্ড, উত্তর আয়ারল্যান্ড ও উত্তর ইংল্যান্ডের হাজার হাজার ঘর বাড়ি অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে পড়েছে। উত্তর আয়ারল্যান্ড কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ২৯ হাজার ঘর বাড়ি এখনও বিদ্যুৎ সংযোগের অপেক্ষায়  রয়েছে। দীর্ঘ সময় ধরে বিদ্যুৎ না থাকায় প্রচন্ড ঠান্ডায় দুর্ভোগে পড়েছে মানুষজন।  ব্রিটেনের স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো এ খবর জানিয়েছে। রিপোর্টের তথ্য অনুযায়ী উত্তর আয়ারল্যান্ডে এক হাজার বাড়ি গত শনিবার থেকে বিদ্যুৎ ও পানি সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। এদিকে, স্কটল্যান্ড, উত্তর ও পশ্চিম অ্যারানে প্রায় সাত হাজার ঘর বাড়িতে বিদ্যুৎ ও পানি সেবা থেকে বঞ্চিত রয়েছে হাজার হাজার মানুষ। এদিকে, ভয়াবহ তুষারপাতে তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নিচে নেমে গেছে। ভারি বরফ জমেছে রাস্তা-ঘাটে। এর ফলে গোটা ব্রিটেনজুড়েই যাতায়াত মারাত্মকভাবে স্থবির হয়ে পড়েছে। বন্ধ রয়েছে দেশটির রেল ও বিমান যোগাযোগ।

সূত্র : দৈনিক পত্রিকা 26.03.2013

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে