প্রতিটি ময়দানে হযরত খালিদ বিন ওয়ালিদ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার বিজয়ের রহস্য!


হযরত খালিদ বিন ওয়ালিদ রদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু সাইফুল্লাহ (আল্লাহর তলোয়ার) হিসেবে খ্যাত ছিলেন। তিনি যে কোন যুদ্ধে যাবার সময় নিজ টুপি নিশ্চয়ই মাথায় রাখতেন এবং সব সময় জয়ী হয়ে ফিরতেন। কোন সময় পরাজয়ের মুখ দেখেন নি। একবার ইয়ারমুকের যুদ্ধে যখন যুদ্ধের ময়দান উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল, তখন উনার টুপিটা কোথায় হারিয়ে গিয়েছিল। তিনি যুদ্ধ করা বাদ দিয়ে টুপি খুঁজতে লাগলেন। এদিকে শত্রুদের পক্ষ থেকে তীর পাথর নিক্ষেপ করা হচ্ছিল। সৈন্যরা মৃত্যু সন্নিকটে মনে করতে লাগলেন।

এ অবস্থায়ও হযরত খালিদ বিন ওয়ালিদ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার টুপির খোঁজে মগ্ন রইলেন। সৈন্যরা ওনাকে গিয়ে বললেন, জনাব টুপির চিন্তা বাদ দিন, যুদ্ধ শুরু করুন। হযরত খালিদ বিন ওয়ালিদ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু   উনাদের কথার প্রতি ভ্রুক্ষেপ করলেন না। তিনি উনার অনুসন্ধান যথারীতি চালিয়ে গেলেন। শেষ পর্যন্ত টুপি পাওয়া গেল। তিনি খুবই আনন্দিত হয়ে সবাইকে উনার টুপি প্রাপ্তির কথা জানালেন এবং বললেন, প্রিয় ভাইয়েরা! এ টুপি আমার এত প্রিয় কেন জানেন? আমি আজ পর্যন্ত যত যুদ্ধে জয়ী হয়েছি সব এ টুপির বদৌলতে। আমার কোন বাহাদুরী নেই, সব এ টুপিরই বরকত। এ টুপি না থাকলে আমি কিছু না। আর যদি এ টুপি আমার মাথায় থাকে তাহলে যত বড় শত্রু হোক না কেন আমার সামনে কিছুইনা। সৈন্যরা জানতে চাইলেন, এ টুপিতে এমন কি বৈশিষ্ট্য আছে?

তিনি বললেন, দেখুন এখানে হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার চুল মুবারক রয়েছে, যা আমি এটার সাথে সেলাই করে রেখেছি। একবার হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনি ওমরাহ পালন করার সময় আমি সাথে ছিলাম। ওমরার পর যখন তিনি উনার পবিত্র মস্তক মুবারকের চুল মুবারক কাটালেন তখন এ চুল হস্তগত করার জন্য আমরা যারা উপস্থিত ছিলাম সবাই ঝাপিয়ে পড়লাম। ভাগ্যক্রমে আমি কয়েকটি চুল মুবারক হস্তগত করতে পেরেছি। সেই চুল মুবারক-ই আমি এ টুপিতে যত্ন সহকারে সেলাই করে রেখেছি। ফলে এ টুপি আমার জন্য সকল বরকত ও জয়ের উসীলা হয়ে গেল। আমি এই নির্দশন মুবাকের  বদৌলতে প্রতিটি যুদ্ধের ময়দানে বিজয়ী হই। তাই আপনারাই বলুন, এ টুপি খুঁজের পাওয়া না গেলে কিভাবে আমার স্বস্তি বোধ হতো?

হুযুর ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সকল বরকত ও অবদানের উসীলা। উনার চুল মুবারক বরকত ও রহমতের সহায়ক।হযরত সাহাবায়ে কিরাম রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সংশ্লিষ্ট সব কিছুকে তাবারুক হিসেবে নিজেদের কাছে রাখতেন। যার কাছে উনার চুল মুবারক থাকতো, আল্লাহ তাআলা তাকে সব কাজে কামিয়াব করতেন।

(সুবহানাল্লাহ্)

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে