প্রস্রাবে এসিড আছে, ময়লা কাপড় ধুলে পরিষ্কার হলেও, সে কাপড় পাক হবে কী?


প্রস্রাবে বিভিন্ন ধরনের এসিড আছে যা ময়লা কাপড় অনায়াসে পরিষ্কার করতে পারে। তাই বলে প্রস্রাবে ধোয়া কাপড় পরে নামায পড়লে নামায হবে কী? উত্তর সবারই জানা, হবে না। কারণ কাপড় পাক হয়নি। নামাযের একটা শর্ত হচ্ছে কাপড় পাক হওয়া। অনুরূপ ধর্মের নামে কোনো কিছু করতে চাইলেও সেটা সঠিক শরয়ী পন্থায় হওয়া বাঞ্ছনীয়। ধর্মের নামে অধর্ম করলেই ধর্ম হয় না। ইসলাম শব্দ ব্যবহার করলেই সেটা ইসলামী হয় না।
যদি ‘ইসলামী’ শব্দ ব্যবহার করলেই ইসলামী না হয়, তাহলে অসংখ্য ইসলাম বা ইসলামী শব্দ ব্যবহারকারী ব্যক্তি, দল, সংগঠন, সংস্থা এ দেশসহ বিশ্বব্যাপীই রয়েছে। যারাই পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাকে বা ধর্মীয় অনুভূতিকে ব্যবহার করে সম্পূর্ণ অনৈসলামী, ধর্মদ্রোহী কাজ করছে। উদ্দেশ্যটা কী? উদ্দেশ্য, ধর্মকে ব্যবহার করলে ধর্মভীরু মানুষের সমর্থন পাওয়া যায়। যা দ্বারা রাজনৈতিক বা দুনিয়াবী সুযোগ-সুবিধা লাভ করা যায়।
এবার আসুন আমরা আমাদের বিবেককে প্রশ্ন করি- ধর্মের নামে অর্ধম বা অপকর্ম কতোটা নৈতিক, বিবেক প্রসূত কিংবা যৌক্তিক! সময় থাকতে অধর্ম বর্জন করে সত্যের পথে আসা উচিত। তাই আসুন সত্যকে জানার, বুঝার এবং মানার চেষ্টা করি।
” বিবেকবান এবং জ্ঞানীদের জন্য ইশারাই যথেষ্ট “

Views All Time
2
Views Today
3
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে