বঙ্গবন্ধুর এই স্বপ্নটি পূরণ করার কি কেউ নেই..?


আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা সবসময় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নের কথা বেশি বেশি বলে থাকে। তাদের দাবি, তাদের প্রতিটি কাজেরই উদ্দেশ্য হলো বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণ করা।
সম্প্রতি বঙ্গবন্ধুর সেই নেতাকর্মীদের অনেকের মুখে রাষ্ট্রধর্ম থেকে ইসলাম বাদ দেয়ার কথা শুনা যায়। কিন্তু এটাও কি তাদের বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিলো? বাস্তবে কি তাই দেখিয়েছেন স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আমরা সকলেই জানি, ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধের মূল পটভূমি ছিলো ৭০-এর নির্বাচন। আর সেই ৭০ এর নির্বাচনের সময় শেখ মুজিবুর রহমান যে শাসনতন্ত্র (সংবিধান) প্রণয়ন করেছিলেন, সেখানে কিন্তু অন্যতম একটি আশ্চর্যজনক বিষয় ছিলো। সেটি বর্তমানের অনেক স্বপ্ন বাস্তবায়নকারী নেতা-কর্মীরা আড়াল করতে চায়। বঙ্গবন্ধু ৭০-এর নির্বাচনের সেই মেনিফেস্টোর মৌলিক বৈশিষ্ট্যের দ্বিতীয় অনুচ্ছেদের নামই ছিলো ‘ইসলাম’। যেখানে স্পষ্ট লেখা ছিলো- “জনসংখ্যার বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশের প্রিয় ধর্ম হলো ইসলাম। আওয়ামীলীগ এই মর্মে সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে শাসনতন্ত্রে সুস্পষ্ট গ্যারান্টি থাকবে যে পবিত্র কোরান ও সুন্নায় সন্নিবেশিত ইসলামের নির্দেশাবলীর পরিপন্থী কোন আইন পাকিস্তানে প্রণয়ন বা বলবৎ করা চলবে না। শাসনতন্ত্রে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সমূহের পবিত্রতা রক্ষার গ্যারান্টি সন্নিবেশিত হবে। সর্বস্তরে ধর্মীয় শিক্ষা সম্প্রসারণের জন্য পর্যাপ্ত বিধিব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। (সূত্র: মুজিবুরের রচনা সংগ্রহ, শেখ মুজিবুর রহমান; বাংলাদেশ কালচারাল ফোরাম পৃষ্ঠা: ১৬২)
অনেকেই এই উদ্বৃতিটুকু পড়ে আশ্চর্য হলেও হতে পারেন। কারন বর্তমানের আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীদের কার্যক্রমের সাথে বঙ্গবন্ধুর সেই শাসনতন্ত্রের ফারাক কতবেশি।
আওয়ামী নেতারা বঙ্গবন্ধুর এত এত স্বপ্ন পূরণ করেন, কিন্তু দেশের ৯৮ ভাগ মুসলমানদের স্বার্থে তিনি যে পদক্ষেপ নিয়েছিলেন, দ্বীন ইসলাম উনার প্রতি যতটুকু শ্রদ্ধা দেখিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নকারীরা কেনো এই তার এই স্বপ্নকে আড়াল করে তার বিপরীত করতে চাচ্ছে?
বাংলাদেশের ৯৮ ভাগ মুসলমানদের চাওয়া-পাওয়ার বিপরীত শিক্ষানীতি ও পাঠ্যবই প্রণয়ন করছে?
সংবিধানের রাষ্ট্রধর্ম থেকে ইসলাম বাদ দিতে চাচ্ছে?
দেশের আদালতের সামনে গ্রীক দেবীর মূর্তি স্থাপন করতে চাচ্ছে?
না এটা কখনোই হতে পারে না। কারন আমরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে যতটুকু চিনি, তার ইতিহাস সম্পর্কে যতটুকু জানি, তিনি কখনোই মুসলমানদের বিপক্ষে এবং দ্বীন ইসলাম উনার বিপক্ষে অবস্থান নেন নি। দ্বীন ইসলাম ও মুসলমানদের বিপক্ষে তার কোন স্বপ্ন ছিলো না।
আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীরা যতি সত্যিকার বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করতে চায় তাহলে তাদের প্রথম কাজ হবে দ্বীন ইসলাম ও মুসলমানদের স্বার্থ রক্ষা করা ও তাদের চাওয়া-পাওয়া, আশাক-আকাঙ্খা সমূহ পূরণ করা। আওয়ামীলীগের মধ্যে কি এমন নেতা-কর্মী নেই যিনি বঙ্গবন্ধুর এই স্বপ্নটিকে বাস্তবায়নের সাহসী পদক্ষেপ নিতে পারবেন?

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে