বছরের শুরুতে মঙ্গলের আশায় মঙ্গলশোভা যাত্রা : মঙ্গলটা পাচ্ছি কোথায় ?


এ বছর শুরুতেই মঙ্গলের আশায় দেশজুড়ে করা হয়েছিলো মঙ্গলশোভা যাত্রা। বাঘ-ভল্লুক-সূর্য আর পেচাঁর কাছে চাওয়া হয়েছিলো মঙ্গল। প্রতি বছর শুধু ঢাকার চারুকলায় একটি মাত্র মঙ্গলশোভা যাত্রা হতো। কিন্তু এ বছর সরকার প্রত্যেক জেলায়-জেলায় থানায়-থানায় মঙ্গলশোভা যাত্রা করার উদ্যোগ নেয় এবং জনগণের মাধ্যমে তা বাস্তবায়ন করে।
মঙ্গল শোভাযাত্রা নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকার খবর ছিলো-
“সত্য সুন্দরের প্রত্যাশায় মঙ্গল শোভাযাত্রা” (http://bit.ly/2wd2Mut)
“এই মঙ্গল সকল বাঙালির। ধনী, দরিদ্র্য, গ্রামের, শহরের সকল বাঙালির জন্য এই দিনটা মঙ্গল নিয়ে আসুক। এই জন্য শোভাযাত্রা।”( http://bit.ly/2uKMokw)
যাই হোক, সারা বছর ভালো থাকার জন্য বাংলা সনের শুরুতেই দেশজুড়ে মঙ্গলশোভা যাত্রা করার পরই আমরা তার ফলাফল পেতে শুরু করি-
১) এপ্রিল মাসে হাওরে বিপর্যয় : সরকার ও দেশবাসী যখন দেশব্যাপী ১৪ই এপ্রিল পহেলা বৈশাখ ও মঙ্গলশোভা যাত্রা পালন নিয়ে ব্যস্ত, ঠিক তখনই দেশের হাওর অঞ্চলে ঘটে যায় স্মরণকালের ভয়াবহ বিপর্যয়। হাওরে ৭টি জেলায় বন্যায় তলিয়ে যায় ৭৫% বোরো ফসল। একটি রিপোর্ট বলছে- সাতটি জেলায় ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে মোট ১১ লাখ ৩৪ হাজার ৬০০ পরিবার। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত সুনামগঞ্জ জেলা। এই জেলায় প্রায় ৯৮ ভাগ ফসল পানিতে তলিয়ে গেছে। এ বছর মোট ২২ লাখ টন ধান হারিয়েছে হাওরের কৃষকরা। মাছ মারা গেছে ২ হাজার টন। সবজি নষ্ট হয়েছে প্রায় ১ হাজার টন। এছাড়া প্রায় ৩০ হাজার হাঁস মরেছে। সব মিলিয়ে ক্ষতি হয়েছে মোট ১৩ হাজার কোটি টাকা। (http://bit.ly/2fMK1ae)
২) মে মাসে দেশজুড়ে অস্বাভাবিক তাপদাহ : এ বছর মে মাসে দেশজুড়ে দীর্ঘস্থায়ী ও অস্বাভাবিক তাপদাহ দেখা যায়, যা অন্য সময় এত ভয়াবহ আকারে দৃশ্যমান হয়নি।
৩) চিকুনগুনিয়া মহামারি : মে থেকে জুলাই এই সময় দেশজুড়ে চিকুনগুনিয়া মহামারি আকারে দেখা দেয়। এ ভয়ানক জ্বরে আক্রান্ত হয় বহু মানুষ। গিটে দীর্ঘমেয়াদী অসহ্য ব্যাথ্যায় দিশেহারা হয়। গণমানুষের মধ্যে এ ধরনের অস্বাভাবিক জ্বর বাংলাদেশে এর আগে কখনো দেখা যায়নি। (http://bit.ly/2i997AS)
৪) বজ্রপাত অস্বাভাবিক বৃদ্ধি : বাংলাদেশে সাম্প্রতিক সময়ে বজ্রপাত ও বজ্রপাতের মৃত্যু সংখ্যা অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পেয়েছে (http://bit.ly/2x6FGlm)। নাসার হিসেবে পৃথিবীর সবচেয়ে অধিক বজ্রপাত প্রবণ এলাকা হচ্ছে বাংলাদেশের সুনামগঞ্জ জেলা। (http://bit.ly/2fMaSDm)
৫) জুনে পাহাড়ধসে মৃত্যুর মিছিল : এ বছর জুন মাসে রাঙ্গামাটিতে পাহাড়ধসে ১৫৬ জনের মৃত্যু হয়। (http://bit.ly/2fNqFl9)
৬) জুলাইয়ে চট্টগ্রাম ও ঢাকায় অস্বাভাবিক পানিবদ্ধতা : এ সম্পর্কে চ্যানেল আই অনলাইন রিপোর্ট : “চট্টগ্রামে স্মরণকালের ভয়াবহ জলাবদ্ধতা”। বিস্তারিত- ভারী বর্ষণ এবং বঙ্গোপসাগরের অস্বাভাবিক জোয়ারের কারণে চট্টগ্রামে সৃষ্টি হয়েছে স্মরণকালের ভয়াবহ জলাবদ্ধতা। নগরীর অধিকাংশ এলাকা কোমর থেকে বুক পরিমাণ পানিতে তলিয়ে গেছে। এবারের জলাবদ্ধতা অতীতের সকল রেকর্ড ভেঙ্গেছে বলে দাবী এলাকাবাসীর। (http://bit.ly/2x6JQKn)
৭) ২০০ বছরের মধ্যে রেকর্ড বন্যার আশঙ্কা : ইতিমধ্যে বাংলাদেশের অনেক এলাকায় ভয়াবহ বন্যা শুরু হয়ে গেছে। এ সম্পর্কে আগেই ২০০ বছরের মধ্যে ভয়াবহ বন্যা হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছিলো ইসিএমডব্লিউএফ নামক একটি সংস্থা। (http://bit.ly/2i9mxNe)
বাংলা মাসের মাত্র ৪ মাস অতিবাহিত হয়েছে (৫ম মাসে পড়েছে), তাই এ অবস্থা। এখনও তো ৮ মাস বাকি। মঙ্গলের আশায় মঙ্গলশোভা যাত্রার ফলাফল তাহলে আরো ৮ মাস দেখতে পাবো। ইতিমধ্যে অবশ্য কয়েকটি সংস্থা বাংলাদেশে বড় ধরনের ভূমিকম্প হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। বলেছে সেটা হলে নাকি লক্ষ লক্ষ মানুষ মারা পরবে। (http://bit.ly/2wcEnVG)
তবে শেষে আবারও বলবো-
“মুছে যাক গ্লানি, ঘুচে যাক জরা,. অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা।” এ বছর একটু কিছু হলেও সমস্যা নাই। সামনের বছর আমরা আরো বড় করে পহেলা বৈশাখ আর মঙ্গলশোভা যাত্রা আয়োজন করবো। তাকে কার বাপের কি ???

 

Collected………………….

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে