বছরে দুইবার উলামায়ে সূরা বিশেষভাবে কাফির হয়


প্রতি বছরই দুই বার উলামায়ে সূ’রা কাফির হয়ে জাহান্নামের কীটে পরিণত হয়।
প্রথমবার যখন সম্মানিত সাইয়্যিদুশ শুহূর পবিত্র রবীউল আউয়াল শরীফ মাস আসেন তখন তারা এই বলে কাফির হয় যে, পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ, ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালন করা জায়িয নেই। নাঊযুবিল্লাহ! অথচ সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করা প্রত্যেক মুসলমানের জন্য ফরয। যে বিষয়ে অসংখ্য দলীল মওজুদ রয়েছে। আর দ্বিতীয়বার উলামায়ে সূ’রা কাফির হয়। যখন শাহরুল হারাম রজবুল আছম শরীফ মাস আসেন তখন তারা পবিত্র মি’রাজ শরীফ সম্পর্কে আলোচনা করতে গিয়ে নূরে গিয়ে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার শান-মান মুবারক উনার খিলাফ কথা-বার্তা বলে কাফির হয়। জাহান্নামের কীট হয়। যেমন তারা সীনা মুবারক চাক করা নিয়ে এমন উদ্ভট কথা বলে যে মূলত নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার শান মুবারক উনার পরিপূর্ণ খিলাফ।
কাজেই আওয়ামুন নাস যারা রয়েছে তাদের জন্য দায়িত্ব হচ্ছে, এই সমস্ত উলামায়ে সূ’দের থেকে নিজেদেরকে দূরে রাখা এবং সঠিক আমল-আক্বীদা শিক্ষা করার জন্য ঢাকা রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মুবারক ছোহবতে আসা এবং বাইয়াত গ্রহণ করা। মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদেরকে সেই তাওফীক্ব দান করুন। আমীন।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে