বাংলাদেশের দেওবন্দী কওমী আলিম নামধারীদের গোমর কি অবশেষে ফাঁস হতে যাচ্ছে?


কওমী মাদরাসার সনদের স্বীকৃতি নিয়ে, বোর্ড গঠন নিয়ে নানা প্রকার টালবাহানা, চালবাজি, গ্রুপিং পাল্টা গ্রুপিংয়ের মধ্যেই ফাঁস হয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের দেওবন্দী ঘরনার কওমী আলিম নামধারীদের গোমর। হাটহাজারী মাদরাসার মুফতে শফী তো বিবৃতি দিয়ে বলে দিয়েছে- যারা সরকারের সাথে আঁতাত করছে তারা কওমীদের কেউ না। তারা দালাল, সুবিধাবাজ, চাঁন্দাবাজ ইত্যাদি। অপরদিকে তার বিপরীত দল বলেছে, কওমীদের উপর একক কতৃত্ব বজায় রাখার চালবাজি শফী গংয়ের চলবে না। এদিকে কওমী দেওবন্দীদের আধুনিক চেলারাও বিভিন্ন দল উপদলে বিভক্ত হয়ে বক্তৃতা বিবৃতি দিয়ে যাচ্ছে। এই নিয়ে নানা মহলে হাস্যরসের সৃষ্টি হয়েছে বিভিন্ন কারণেই। কারণ এতদিন কওমী দেওবন্দী আলিম নামধারীরা তাদের নিজেদেরকে খুব স্বচ্ছ, দুনিয়া বিরাগ, আল্লাহওয়ালা সমাজের নিকট প্রকাশ করেছে প্রচার করেছে। তারা সুন্নী আলিমদেরকে মিথ্যা তোহমত দিয়ে বিভিন্ন মসজিদ-মাদরাসা হতে বহিষ্কার করার অপচেষ্টা করেছে। তারা কোনো দলবাজি রাজনীতি ইত্যাদি করে না বলে চিৎকার করেছে। যদিও কওমী দেওবন্দী ফারেগ বহু মালানারা ইসলামের নামে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল বানিয়ে হারাম গণতন্ত্রের ভোট নির্বাচন ইত্যাদি অংশ নিয়েছে। ফায়দা লুটার জন্য বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বেগানা নারীদের নেতৃত্বে জোট বেঁধেছে। এমনকি এসব কওমী দেওবন্দী আলিম নামধারীরা প্রতিবাদের নামে, দাবি আদায়ের নামে কাট্টা কাফির মাওসেতুংয়ের লংমার্চ করেছে, মুশরিক গান্ধীর হরতাল করেছে। এমনকি নাছারাদের ব্লাসফেমী আইন দাবি করেছে। এরাই বেপর্দা হয়ে হারাম গান বাজনার মজলিসে গিয়েছে। হারাম ছবি তুলেছে ভিডিও করেছে। আর এসব হারাম কাজ অদ্যাবধি তারা করেই যাচ্ছে। এখন যখন সরকার তাদের দাবির মুখে আলাদা কওমী শিক্ষা বোর্ড গঠনের তোড়জোড় শুরু করেছে, তখন নেতৃত্বে থাকার জন্য, চেয়ারম্যান হবার জন্য, সবার আমীর হবার জন্য দেশের বিভিন্ন জেলা থানার বিভিন্ন কওমী দেওবন্দীরা বিভিন্ন দলে উপদলে বিভক্ত হয়ে গেছে। আর নিত্যদিন বক্তৃতা বিবৃতি সংবাদ সম্মেলন করে তারা যেসব কথা একেকজন একেক মালানাদের নামে বলে যাচ্ছে, তাতে আশা করা যায় অল্প কিছুদিনের মধ্যে তাদের সকল গোমর একসাথেই ফাঁস হয়ে যাবে। মূলত, এরাই হলো দুনিয়াদার ধর্মব্যবাসায়ী মালানা যারা দ্বীন উনাকে বিক্রি করে দুনিয়া হাছিল করার অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে। আলিম-উলামা উনাদের মান-সম্মান-ইজ্জত এদের কারণেই মানুষের নিকট হেয় হচ্ছে। মহান আল্লাহ পাক তিনি এসব ধর্মব্যবসায়ী দুনিয়াদার কওমী দেওবন্দী মালানাদের ফিতনা থেকে মুসলিম উম্মাহ উনাদেরকে হিফাযত করুন। আমীন!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে