বাংলাদেশের সরকারী আমলাদের কি পরকালের কথা মনে পড়ে না?


কিছুদিন আগে একজন মন্ত্রী মৃত্যুবরণ করেছে। সে মৃত্যুর আগে প্রকাশ্যে ধূমপান ও সভায় ঘুমানোর কারনে সাংবাদিকদের কাছে বেশ আলোচিত ছিলো। কিন্তু তার চেয়ে বেশি সমালোচিত ছিলো ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের কাছে। তবে সেটা ভালো মানুষ হিসেবে নয়। কারণ সে প্রকাশ্যেই মেয়েদের পর্দা করার বিরুদ্ধে বলতো। এমনকি পর্দানশীন হয়ে তথা বোরকা পরে ছাত্রীদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আসতেও নিষেধ করতো। নাউযুবিল্লাহ।
তো সেই মন্ত্রী এখন মাটির নিচে, কবরে। মানুষ কি জানে এখন সে কি অবস্থায় আছে। তবে এটা নিশ্চিত ধূমপান করার কারণে সে যতটুকু পাকড়াও হবে, তার চেয়ে বেশি পাকড়াও হবে মহান আল্লাহ পাক উনার সুস্পষ্ট আদেশ পর্দা করার বিরুদ্ধে বলার কারণে।
এক মন্ত্রীতো চলে গেলো। এরকম আরো অনেক মন্ত্রী-এমপিরাই আছে যারা সুযোগ পেলে প্রকাশ্যেই সম্মানিত পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার অনেক বিধি-বিধানের বিরুদ্ধে বলে থাকে, আদেশ-নিষেধ দিয়ে থাকে। নাউযুবিল্লাহ। এখনো দুনিয়ার জমিনে বিচরণকারী সেসব সরকারি আমলাদের কাছে আমার প্রশ্ন- একবারের জন্যও কি আপনাদের অন্তরে আখিরাত তথা পরকালের কথা চিন্তায় আসে না? একবারও কি এটা চিন্তা করেন না- সেই হাশরের ময়দানে কিভাবে মহান আল্লাহ পাক উনার সামনে এসবের জবাব দিবেন?
যদি মহান আল্লাহ পাক উনার প্রতি, আখিরাতের প্রতি এতটুকু বিশ্বাস-ঈমান থেকে থাকে তবে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করুন। ভাবুন আরো অনেক এমপি-মন্ত্রীদের মতো আপনাকেও মৃত্যুবরণ করতে হবে।
Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে