বাজেট ঘাটতি পূরণে পবিত্র আশূরা পালনে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা জরুরী


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “যে ব্যক্তি পবিত্র আশূরা মিনাল মুহররম উপলক্ষে তার পরিবারকে ভালো খাদ্য খাওয়াবে, খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি তাকে এক বছরের জন্য সচ্ছলতা প্রদান করবেন।” সুবহানাল্লাহ!
জ্ঞানী-গুণী সর্বমহলে এ বিষয় সর্বজন স্বীকৃত যে, দেশের সরকারের নিকট জনগণ পরিবার সদৃশ। তাছাড়া হযরত উমর ইবনুল আব্দুল আযীয রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি খিলাফত গ্রহণ করতঃ তৎকালীন আলিমগণের পক্ষ হতে নছীহত কামনা করেন।
তখন অধিকাংশ আলিমগণই উনাকে যে নছীহত করেছেন, তাহলো- খলীফা হিসেবে আপনি আপনার অধীনস্থদেরকে পরিবার মনে করবেন। অর্থাৎ সমস্ত জনগণই সরকারের পরিবার হিসেবে স্বীকৃত।
পাঠক! বাজেট ঘাটতি বাংলাদেশের জন্মগত একটি বিষয়। যার সমাধান এখন পর্যন্ত কোনো সরকারই করতে পারেনি। অথচ পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে এ বিষয়ের একটি সমাধান রয়েছে; যা উপরে ব্যক্ত করা হয়েছে।
মূলত, পবিত্র আশূরা মিনাল মুহররম শরীফ উপলক্ষে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা একান্ত জরুরী। সরকারি ছুটি, গরিবদের জন্য খাদ্য সরবরাহসহ অন্যান্য বিশেষ সুবিধাবলী প্রদান করা। সাথে সাথে দুর্নীতিসহ ইসলামী শরীয়ত উনার বিরোধী যাবতীয় কার্যাবলী হতে বিরত থাকা সরকারের জন্য আবশ্যক। তবেই বাজেট ঘাটতি পূরণসহ সমস্যাবলীর সামগ্রিক সমাধান সাধিত হবে। যা পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার ঘোষণা।

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে