বিধর্মী লেখকের স্বীকারোক্তি: শিশুকাল থেকেই তারা শিক্ষা দেয় যে, মুসলমানরা তাদের শত্রু!


রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি উনার মজলিস মুবারকে নিয়মিত একখানি নছীহত মুবারক করে থাকেন। তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, কাফিররা তাদের শিশুসন্তানদেরকে প্রথমেই যে শিক্ষাটি দিয়ে থাকে, তাহলো মুসলমানরা তাদের শত্রু। নাউযুবিল্লাহ! কিন্তু কোনো মুসলমানকে কি দেখানো যাবে যে, সে তার সন্তানকে এই শিক্ষা দিয়েছে যে, কাফিররা তথা ইহুদি-নাছারা-হিন্দুমুশরিক-বৌদ্ধরা তার শত্রু? আমভাবে এরূপ কখনোই দেখানো যাবে না।
তিনি আরো ইরশাদ মুবারক করেন যে, কাফিররা যে তাদের সন্তানদেরকে শত্রুতার শিক্ষা দেয়, তা কিন্তু কাফিররাই তাদের লেখা বইগুলোতে স্বীকার করেছে। কিন্তু আফসোস! মুসলমানরা পড়াশোনা করে না, তারা টিভি-সিনেমা-খেলাধুলা নিয়ে ব্যস্ত থাকে। নাউযুবিল্লাহ! তাই তারা সেগুলো জানে না, জানার চেষ্টাও করে না।
প্রাবন্ধিক নীরদ সি চৌধুরী তার আত্মজীবনী The Autobiography of an unknown indian -এর ২৬৮ পৃষ্ঠাতে উল্লেখ করেছে, Nothing was more natural for us than to feel about the Muslims in the way we did. Even before we could read we had been told that the Muslims had once ruled and oppressed us, that they had spread their religion in India with the Koran in one hand and the sword in the other.
নীরদ সি চৌধুরী স্পষ্টতই বলেছে যে, মুসলমানদের প্রতি শত্রুতাবোধ মুশরিকদের স্বভাবচরিত্রে যতটা ‘স্বাভাবিক’ বিষয়, অন্য কোনো কিছুই তার মতো নয়। মুসলমানরা একদা মুশরিকদের শাসন করেছে, মুসলমানরা মুশরিকদের (কথিত) নির্যাতন করেছে, মুসলমানরা একহাতে পবিত্র কুরআন শরীফ ও অন্যহাতে তরবারি নিয়ে ভারতবর্ষে ধর্মপ্রচার করেছে ইত্যাদি নানারকম সাম্প্রদায়িক আবর্জনা মার্কা মিথ্যা শিক্ষা দিয়ে হিন্দুরা তাদের শিশুদের মাথা ছোটবেলা থেকেই ব্রেইনওয়াশ করে থাকে। ঊাবহ নবভড়ৎব বি পড়ঁষফ ৎবধফ দ্বারা লেখক আরো স্পষ্ট করেছে যে, এসব কুশিক্ষা শুরু হয় বিধর্মী শিশুদের অক্ষরজ্ঞান অর্জনের পূর্বেই, ফলশ্রুতিতে তা সারাজীবনের জন্য তাদের মনে গেঁথে যায়।
খবরে এসেছে যে, পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পরও সেখানকার মুসলমানদের আর্থসামাজিক অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি। হবেই-বা কিভাবে, কারণ বিধর্মী রাজনীতিবিদদের গায়ে বিজেপি’র লেবাসই থাকুক আর তৃণমূলের লেবাসই থাকুক, তাদের সবার বাল্যশিক্ষাই কিন্তু এক, আর তাহলো- ‘মুসলমানরা হলো মুশরিকদের শত্রু’। নাউযুবিল্লাহ! কিন্তু আফসোস, মুসলমানরা তাদের শত্রু চিনে না। যে কারণে তারা দল বা গোষ্ঠী পরিচয়ের উপর ভিত্তি করে কাফিরদের সাথে বন্ধুত্ব করতে যায়, এবং অবধারিতভাবেই প্রতারিত ও নিগৃহীত হয়। নাঊযুবিল্লাহ!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে