মনে রাখুন +২৪৩….নম্বর!


সম্প্রতি  +২৪৩ ডিজিট দিয়ে শুরু হওয়া ফোন নম্বর থেকে বাংলাদেশের অনেকেই ফোন পাচ্ছেন৷ কেউ কেউ সেটা ধরছেন৷ আর যাঁরা মিসড কল পাচ্ছেন তাঁরা পরে সেটাতে কলব্যাক করছেন৷ এতে করে অস্বাভাবিক হারে ব্যালেন্স কমে যাচ্ছে সবার৷এভাবে প্রতারণার শিকার হয়েছেন।

ফোন ফ্রডের মধ্যে 809 scam বা Wangiri scam বেশ চালু সারা বিশ্বে, সম্প্রতি বাংলাদেশেও এটা ছড়িয়ে পড়েছে৷ ব্যাপারটা বোঝার আগে ফোন সিস্টেমের বিলিং চার্জ কীভাবে হয়, তা একটু ব্যাখ্যা করি৷ অনেক ফোন কোম্পানিই প্রিমিয়াম নাম্বার রাখে, যেখানে ফোন করলে ‘নর্মাল’ চার্জের পাশাপাশি মিনিট প্রতি ‘সার্ভিস’ চার্জ দেয়া লাগে ঐ নম্বরের মালিককে৷ আন্তর্জাতিক কলের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা আরো গোলমেলে৷ ধরুন আপনি গ্রামীণফোন থেকে কল করলেন বিদেশের কোনো নম্বরে৷ সেখানে ফোন করার জন্য গ্রামীণ আপনাকে যা বিল করবে, তার একটা অংশ পাবে যেই নম্বরে ফোন গেছে, সেই ফোন কোম্পানি৷ আর যদি ঐ নম্বরটা প্রিমিয়াম নম্বর হয়, তাহলে তো কথাই নাই, ফোন নম্বরের মালিক ইচ্ছামত যা চার্জ করে, গ্রামীণ আপনাকেও সেই চার্জ করবে৷ পুরো ব্যাপারটা আইন মোতাবেকই হচ্ছে৷

‘‘এখন এই সিস্টেমটাকে কাজে লাগিয়ে অনেক প্রতারক নতুন ধান্ধা খুলে বসেছে৷ অসাধু ফোন কোম্পানির সহায়তায় তারা প্রিমিয়াম নম্বর খুলে বসে, তার পর অটোডায়ালার সফটওয়ার দিয়ে মিস কল দিতে থাকে অন্য দেশের নানা জায়গায়৷ যেহেতু কল করতে হচ্ছে না, তাদের খরচ নাই আদৌ৷ আর সফটওয়ার দিয়ে অটোডায়াল করাতে দিনে হাজার হাজার এমন মিস কল দিতে পারে৷ এমন হাজারটা মিস কল দিলে কেউ না কেউ আগ্রহ বশত কল রিটার্ন তো করবেই, তাই না? ব্যস৷ এরা পেয়ে বসলো৷ আন্তর্জাতিক কলের জন্য আপনাকে তো দিতে হবে রেট অনুযায়ী চার্জ, তার উপরে সেই প্রিমিয়াম নম্বর এর ধান্ধাবাজ মালিক যা রেট ধরে রেখেছে, আপনাকে সেটাও দিতে হবে৷ বলাই বাহুল্য, সেই চার্জটা আকাশ ছোঁয়া৷”

 

 

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+