মন্ত্রীর বাড়িতে ১ মণ সোনা রূপা!


এতো দিন সোনা-রুপার বিছানায় আরামেই শুয়ে দিন কাটাচ্ছিলেন ভারতের কর্নাটকের মন্ত্রী কে এস ঈশ্বরাপ্পা!

কিন্তু বি. বিনোদ নামে এক বেরসিক আইনজীবী তার এই বিলাসবহুল জীবন যাপনে ব্যাঘাত ঘটালেন!

হঠাৎই বিপুল অর্থ-বৈভবের মালিক হয়ে গেছেন ঈশ্বরাপ্পা! সম্প্রতি বিনোদের এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে আদালত ঈশ্বরাপ্পার বাড়িতে অভিযান চালাতে পুলিশকে নির্দেশ দেন!

অভিযানে ঈশ্বরাপ্পার বাড়ি থেকে খনি আবিষ্কারের মতো বেরিয়ে ‍আসে ২ কেজি সোনা, ৩৭ কেজি রুপা আর নগদ ১১ লাখ রূপি!

অভিযান পরিচালনা বাহিনীর একজন মুখপাত্র সোমবার আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমকে জানান, ঈশ্বরাপ্পার বেঙ্গালোর ও শিমগোর বাড়িসহ সংশ্লিষ্ট আটটি স্থানে অভিযান চালানো হয়!

তিনি জানান, আগামী ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যেই এ বিষয়ে প্রতিবেদন ‘লোকাযুক্ত’র (ন্যায়পাল) কাছে জমা দেওয়া হবে।

তবে পুলিশ জানিয়েছে, উদ্ধারকৃত সম্পদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে।

এর আগে, বিনোদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ১৫ ডিসেম্বর ঈশ্বরাপ্পা, তার ছেলে কে. ই. কান্তেশ এবং পুত্রবধু শালিনির বিরুদ্ধে একটি এফআইআর দায়ের করে পুলিশ।

এ জন্য, গ্রেফতার এড়াতে আগাম জামিনের আবেদন করেছেন ঈশ্বরাপ্পা ও তার পরিবারের অভিযুক্ত সদস্যরা। আবেদনের শুনানি ২৭ ডিসেম্বর ধার্য করেছেন সংশ্লিষ্ট আদালত।

এ দিকে, কর্নাটক সফররত বিজেপি প্রধান পুলিশের এ অভিযানকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, “সত্য বের হওয়া উচিত।”

এদিকে, কেলেঙ্কারির পর কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে সহকারি মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়াতে ঈশ্বরাপ্পার প্রতি আহবান জানানো হয়।

তবে, ঈশ্বরাপ্পা তা নাকচ করে দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) কর্নাটক রাজ্য শাখার সভাপতি ঈশ্বরাপ্পা রাজ্যের সহকারি মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন।

দুর্নীতি কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়া ভারতের মন্ত্রীদের মধ্যে সর্বশেষ নাম লেখালেন ঈশ্বরাপ্পা।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে