মহাচোর নিউটন কর্তৃক গতির সূত্রগুলো নিজের নামে চালানোর মুখোশ উম্মোচন (পর্ব দুই)


মহাচোর নিউটন (১৬৪৩-১৭২৭) গতি সংক্রান্ত ৩টি সূত্র বিভিন্ন মুসলিম বিজ্ঞানীদের কিতাব থেকে চুরি করে তার “Philosophiæ Naturalis Principia Mathematica” বইতে তার নিজের নামে চালিয়ে দেয়। আমরা তার চুরির মুখোশ উম্মোচনের করব।

গতির দ্বিতীয় সূত্রে বলা হয়েছে যে,“কোন বস্তুর ভরবেগের পরিবর্তনের হার প্রযুক্ত বলের সমানুপাতিক এবং বল যে দিকে ক্রিয়া করে বস্তুর ভরবেগের পরিবর্তন সেদিকেই ঘটে।”

অথচ হিবাতুল্লাহ আবুল বারাকাত আল বাগদাদী (১০৮০-১১৬৫) মহাচোর নিউটনের প্রায় ৫৫০ বছর পূর্বে “আল মুকতাবার ফিল হিকমা” (The Considered in Wisdom)  কিতাবে উল্লেখ করেন যে, “শক্তিশালী বল প্রয়োগে বস্তু দ্রুত চলে এবং স্বল্প সময় নেয়। যদি বল কমানো না হয় তাহলে গতিও কমবে না।” তিনি তার কিতাবটির চর্তুদশ অধ্যায়ে বলেন, “যদি বেশি বল প্রয়োগ করা হয় তবে বস্তু দ্রুত বেগে চলবে এবং কম সময়ে দুরত্ব অতিক্রম করবে। ” এই বক্তব্যের মাধ্যমে স্পষ্টতঃ প্রমাণিত হয়ে যে, মহাচোর নিউটন নয় হিবাতুল্লাহ আবুল বারাকাত আল বাগদাদই গতির দ্বিতীয় সূত্র আবিষ্কার করেছেন।

সূত্রঃ www.wikipedia.org
www.islamstory.com

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

  1. আজব says:

    তাই নাকি! মনে হয় নিউটন ভেবেছিল আবুল বারাকাত আল বাগদাদীর বই কোনদিন কেউ দেখবে না। কিন্তু আর রেহাই নাই, ধরা পইড়া গেল।

  2. আর্তনাদআর্তনাদ says:

    চুরি করতে গিয়া পা দেখে গেছে।
    কাফিরের চুরি ধরা পড়াছে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে