মহান আল্লাহ পাক উনার নিকট পছন্দনীয় ও পবিত্র মাস হচ্ছেন ছফর শরীফ মাস


মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক উনার নিকট আসমান-যমীনের সৃষ্টির শুরু থেকে গণনা হিসেবে মাসের সংখ্যা ১২টি। তন্মধ্যে ৪টি হচ্ছে হারাম বা পবিত্র মাস। এটা সুপ্রতিষ্ঠিত বিধান। সুতরাং তোমরা এ মাসগুলোতে নিজেদের প্রতি যুলুম বা অবিচার করো না।” (পবিত্র সূরা তাওবাহ শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ৩৬)

উক্ত পবিত্র আয়াত শরীফ উনার দ্বারা বুঝা যায় যে, মহান আল্লাহ পাক উনার গণনায় মহান আল্লাহ পাক উনার বিচারে মহান আল্লাহ পাক উনার ফয়ছালায় বান্দাদের গণনার সুবিধার্থে মাসের সংখ্যা ১২টি হয়েছে। অর্থাৎ সকল মাসগুলো মহান আল্লাহ পাক উনার পছন্দীয় ও পবিত্র। ১২টি মাস হলো- ১. মুহররমুল হারাম শরীফ ২. পবিত্র ছফর শরীফ ৩. রবীউল আউওয়াল শরীফ (শাহরু সাইয়্যিদিল আ’ইয়াদ ঈদে মীলাদুন নবী বা ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) ৪. পবিত্র রবীউছ ছানী শরীফ ৫. পবিত্র জুমাদাল ঊলা শরীফ ৬. পবিত্র জুমাদাল উখরা শরীফ ৭. পবিত্র রজবুল আছাম শরীফ ৮. পবিত্র শা’বান শরীফ ৯. পবিত্র রমাদ্বান শরীফ ১০. পবিত্র শাওয়াল শরীফ ১১. পবিত্র যুল কা’দাহ শরীফ ১২. পবিত্র যুল হিজ্জাহ শরীফ।

বারোটি (১২) মাসের মধ্যে পবিত্র ছফর শরীফ মাস অনেক বরকত ও রহমতযুক্ত মাস। ইবাদত-বন্দেগী রোনাজারী তাওবাহ ইস্তিগফার করার মাস। পবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ উনার পর আর পবিত্র রবীউল আওয়াল শরীফ উনার পূর্বে পবিত্র ছফর শরীফ মাসের অবস্থান। মূলত, এ মাস পবিত্র ঈমান-আক্বীদাহ শুদ্ধ করার মাস। আমলকে উন্নত করার মাস। দান ছদকাহ করা ও হযরত আহলু বাইত শরীফ উনাদের মুহব্বত অর্জন করার মাস।

মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদেরকে ও বিশ্ববাসীকে পবিত্র ছফর শরীফ মাস উনার শিক্ষা জেনে শুনে এ মাসকে যথাযথ তা’যীম-তাকরীম করার তাওফীক দান করুন। আমীন।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে