মহাসম্মানিত বরকতময় লাইলাতুর রগায়িবে সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম!!!!


মহাসম্মানিত বরকতময় লাইলাতুর রাগায়িবে সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম!!! জ্বিন-ইনসান সহ সমস্ত কায়িনাতবাসীর জন্য এক চির মুক্তির পয়গাম, চরম প্রশান্তির বরকতময় রাত্রি মুবারক!!!

 

মহাসম্মানিত বরকতময় লাইলাতুর রগায়িবে সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম কি?? কখন সংঘঠিত হয়?? এই বরকতময় রাত্রি মুবারক উনার মাধ্যমে কিভাবে জ্বিন-ইনসান, কায়িনাতবাসী চির মুক্তির পয়গাম লাভ করলো?? পরম প্রশান্তি লাভ করলো???

 

মহাসম্মানিত বরকতময় লাইলাতুর রগায়িবে সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম: যে মহাসম্মানিত বরকতময় রাত্রি মুবারক-এ সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদে রসূল, ইমামুল উমাম সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি উনার মহাসম্মানিতা আম্মাজান সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা আলাইহাস সালাম উনার মহাসম্মানিত রেহেম শরীফ-এ মহাসম্মানিত বরকতময় তাশরীফ মুবারক এনেছেন, সেই মহাসম্মানিত বরকতময় রাত্রি মুবারকই হচ্ছেন- মহাসম্মানিত বরকতময় লাইলাতুর রগায়িবে সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম। সুবহানাল্লাহ!!!

 

সংঘঠিত হওয়ার সময়: মহাসম্মানিত মি’রাজ শরীফ উনার বরকতময় রাত্রি ২৭ শে রজবুল হারাম শরীফ, ইয়াওমুল ইছনাইনিল আ’যীম শরীফ (সোমবার শরীফ)

 

চির মুক্তির পয়গাম, চির প্রশান্তির বরকতময় রাত্রি: যদি আমরা মহাসম্মানিত বরকময় লাইলাতুর রগায়িবে সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম না পেতাম, তাহলে আমরা সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনাকে পেতাম না।

আর উনাকে না পেলে মহাসম্মানিত হযরত আহলুল মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকেও পেতাম না।

 

আর, প্রাণপ্রিয় শায়েখ সাইয়্যিদুনা মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার এবং মহাসম্মানিত হযরত আহলুল মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিমুস সালাম উনাদের জন্যই যিন্দেগীর সমস্ত প্রশংসা, সমস্ত ছানা-ছিফত, সমস্ত শুকরিয়া।

 

কেন? কারণ হচ্ছে,

 

যখন রাতের আধাঁর নেমে আসে, কোথাও কিছু দেখা যায় না, ঘুঁটঘুঁটে অন্ধকার, ডান-বাম চিনা যায়না, সামনে পিছনে বুঝা যায়না, কোনটা ঠিক কোনটা বেঠিক সেটা জানা যায় না, এমনি যখন পরিস্থিতি ছিলো তখন যিনি খালিক্ব যিনি মালিক যিনি রব মহান আল্লাহ পাক তিনি জানিয়ে দিলেন- “আমার তরফ থেকে তোমাদের জন্য এসেছেন যিনি সম্মানিত মহাপবিত্র পবিত্রতম নূর মুবারক, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। সুবহানাল্লাহ!!! তিনি সমস্ত জগতকে, তিনি কুল কায়িনাতকে তিনি মহান আল্লাহ পাক উনার নূর দিয়ে, নিজের নূর দিয়ে তিনি আলোকিত করলেন। সুবহানাল্লাহ!!! তখন ডান-বাম সমস্তকিছু স্পষ্ট হয়ে গেলো, হক্ব নাহক্ব স্পষ্ট হয়ে গেলো কিন্তু আফসোসের বিষয়! আবার সেই যুলুমাত, সেই আইয়্যামে জাহিলিয়্যাত, সেই যুলুমাত, সেই অন্ধকার আবার এসেছে। এখনো আল্লাহ পাক তিনি আমাদের প্রতি দয়া করেছেন, ইহসান করেছেন। নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি আমাদের প্রতি অসীম দয়া করছেন, ইহসান করেছেন। এখনও আবার তিনি এসেছেন, কে তিনি?? তিনি হচ্ছেন, নূরে মুকাররম মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম। সুবহানাল্লাহ!!! তিনি যে নূর জ্বালিত করেছেন, সমস্ত দিক বেদিক, সমস্ত কিছু আলোকিত হয়ে গেছে, আমরা অন্ধকারে ছিলাম, হক্ব নাহক্ব আমাদের কাছে স্পষ্ট হয়ে গেছে, কোনটা ডান কোনটা বাম আমরা বুঝে গেছি জেনে গেছি। মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি আমাদেরকে সেই নূর জ্বালিয়ে দিয়েছেন, তিনি আমাদের জানিয়েছেন সেই মুক্তির পয়গাম যিনি সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার শানে খুশি প্রকাশ করতে হবে। খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার কালাম পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফে ইরশাদ মুবারক করেছেন- হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি জানিয়ে দিন! সমস্ত রহমত মুবারক, সমস্ত ফযল মুবারক সমস্ত নিয়ামত তারা পাচ্ছে আপনার উছীলাতে, আপনার সম্মানিত উছীলা মুবারক উনার জন্যে তারা লাভ করছে, তারা যদি নিয়ামত পেতে চায় তারা যদি কামিয়াবী হাছিল করতে চায়, তাদের দুনিয়াবী যিন্দেগী হোক, তার আখিরাতের জিন্দেগী হোক, সমস্ত যিন্দেগীতে যদি তারা কামিয়াবী হাছিল করতে চায় তবে তাদেরকে কি করতে হবে?? ফাল ইয়াফ রহু, তাদেরকে খুশি পালন করতে হবে, খুশি প্রকাশ করতে হবে, নিজে খুশি হতে হবে, অন্যদেরকে সেই খুশি করতে হবে, দিক বেদিকে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এবং উনার সাথে সংশ্লিষ্ট সম্মানিত ব্যক্তিত্ব রয়েছেন, হযরত আবু রসূলিনা – উম্মু রসূলিনা আলাইহিমাস সালাম, হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম, হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম এবং আমাদের জন্যে আখাচ্ছুল খাছভাবে মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম, হযরত আহলুল মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিমুস সালাম উনারা হচ্ছেন, নিয়ামাতুল কুবরা, সমস্ত নিয়ামতের মালিক উনারা, উনাদের কাছ থেকেই নিয়ামত হাছিল করতে হবে, এজন্যই খুশি প্রকাশ করতে হবে, এই খুশি প্রকাশ করাটা সমস্ত কিছুর চেয়ে উত্তম। তোমাদের খাছলত হচ্ছে তোমরা জমা করে রাখো কিন্তু জমা করার বিপরীতে খরচ করে খুশি প্রকাশ করতে হবে। তোমরা কি জমা করো? তোমরা টাকা-পয়সা ধনদৌলত জমা করো, তোমরা জমি-জমা জমা করছো, তোমরা আল-আওলাদ জমা করছো, তোমরা ইলিম জমা করছো, তোমাদের অভিজ্ঞতা জমা হচ্ছে, তোমাদের আমল জমা হচ্ছে, আমলের প্রতিদান আখিরাতে জমা হচ্ছে কিন্তু সমস্ত কিছুর চেয়ে উত্তম তোমরা যদি বুঝতে, সেই অলৌকবানী, সেই শ্বাশ্বতবাণী, সেই মুক্তির পয়গাম, মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম এবং হযরত আহলুল মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিমুস সালাম উনারা আমাদের জানিয়ে দিলেন, ফাল ইয়াফ রাহু, তোমরা খুশি প্রকাশ করো, এই খুশি প্রকাশ করাটা হচ্ছে, তোমাদের সমস্ত কামিয়াবীর মূল, তোমাদের ঈমানের মূল, তোমাদের আমলের মূল, তোমাদের নাযাতের মূল, তোমাদের মর্যাদা বৃদ্ধির মূল, সমস্ত কিছু্র মূল হচ্ছে, ফাল ইয়াফ রাহু। তাইতো মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি জারি করলেন, আমাদের নাজাতের জন্যে, আমাদের কামিয়াবীর জন্যে, আমাদেরকে রক্ষা করার জন্যে অনন্তকালব্যাপী সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ মাহফিল। আলহামদু মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম!!! আলহামদুলি আহলুল মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিমুস সালাম!!! সমস্ত শুকরিয়া মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম এবং হযরত আহলুল মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিমুস সালাম উনাদের জন্যে, আপনারা আমাদের রক্ষা করেছেন, মুসলমান জাতি এখানে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছিলো, তারা নিশ্চিহ্ন হয়ে যাচ্ছিলো, কাফির-মুশরিকদের চক্রান্তে কারণে তারা বিমুখ হয়ে যাচ্ছিলো, তাদের বাকরূদ্ধ হয়ে গিয়েছিলো, আপনারা সে সময় এসে তারা আপনারা আমাদের রক্ষা করেছেন, আমাদেরকে নাযাত দিয়েছেন, আপনারা আমাদের রক্ষাকর্তা, আপনারা আমাদের প্রাণকর্তা, আপনাদের জন্যে আমাদের সমস্ত শুকরিয়া, আপনারা আমাদের মাহী, আপনারা আমাদের সমস্তকিছু, আপনারা আমাদের হিফাযত করুন। আমীন

 

 

* সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার পরিচিতি, আগমণ মুবারক উনার প্রেক্ষাপট এবং তাজদীদ মুবারক উনার ব্যপকতা সম্পর্কে কিঞ্চিত বর্ণনা: http://goo.gl/nwxjkl

 

* এবং উনার কতিপয় মহাসম্মানিত তাজদীদ মুবারক: goo.gl/06310B

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে