মহিলাদের জন্য উত্তম আমল হলো ‘পর্দানশীন’ থাকা!


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “মহিলারা পর্দার সাথে থাকবে। কেননা যখন তারা বের হয় তখন শয়তান উঁকিঝুঁকি দিতে থাকে।” অর্থাৎ তাদের দ্বারা কোনো পাপ কাজ সংঘটিত করানো যায় কিনা এ চেষ্টা করতে থাকে। নাঊযুবিল্লাহ!
পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে আরো ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “যখন কোনো বেপর্দা মহিলা কোনো রাস্তা দিয়ে হেঁটে যায়, তখন মহান আল্লাহ পাক উনার লা’নত চল্লিশ দিন ধরে সে রাস্তায় বর্ষিত হতে থাকে।” নাঊযুবিল্লাহ!
মূলত, ইত্যাদি কারণে মহিলাদের বিনা প্রয়োজনে বাইরে অবস্থান করতে নিষেধ করা হয়েছে। প্রয়োজনে যেমন তা’লীম-তালক্বীন বা অন্য কোনো বিশেষ জরুরতে পর্দা রক্ষা করে বের হওয়ার অনুমতি রয়েছে।
পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “প্রত্যেকের জন্য ইলম অর্জন করা ফরয।”
এ থেকে বুঝা যায় মহিলাদের বিশেষ প্রয়োজন, যেমন: পবিত্র ইলম অর্জন করার ক্ষেত্রে বের হওয়ার অনুমতি রয়েছে।
পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, একবার নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি উপস্থিত হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনাদেরকে লক্ষ্য করে বললেন, মহিলাদের জন্য কোন আমলটি সবচেয়ে উত্তম? তখন হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনারা বিষয়টি ফিকির করতে থাকলেন। ইতোমধ্যে ইমামুল আউওয়াল মিন আহলে বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম তিনি বিষয়টি জানার জন্য সাইয়্যিদাতুন নিসা, উম্মু আবীহা আন নূরুর রবিয়া হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম উনার নিকট গেলেন এবং জিজ্ঞাসা করলেন, মহিলাদের জন্য কোন আমলটি সর্বোত্তম? উত্তর মুবারকে সাইয়্যিদাতুনা আন নূরুর রবিয়া হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম তিনি ইরশাদ মুবারক করলেন, “কোনো মহিলা কোনো পুরুষকে দেখবে না এবং কোনো পুরুষও তাকে অর্থাৎ সে কোনো মহিলাকে দেখবে না। সুবহানাল্লাহ! অর্থাৎ উভয়ই পর্দা রক্ষা করে চলবে। হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম তিনি উত্তর মুবারকটি জেনে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে জানালে তিনি অত্যন্ত সন্তুষ্ট মুবারক প্রকাশ করে বলেন, তিনি (হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম) আমার মনের কথাটিই বলেছেন। অর্থাৎ পর্দা করাই হচ্ছে মহিলাদের জন্য সর্বশ্রেষ্ঠ আমল। সুবহানাল্লাহ!
মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদেরকে সঠিক আক্বীদা পোষণ করার ও হাক্বীক্বী পর্দা করার তাওফীক দান করুন। আমীন!

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে