মুসলমানদের নির্যাতনের ফলসরূপ খোদায়ী গজব: মহারাষ্ট্রের মারাঠওয়াড়া জেলায় ৬ মাসে ৪৩৩ কৃষকের আত্মহত্যা


ভারতের মহারাষ্ট্রের খরা কবলিত মারাঠওয়াড়ার আটটি জেলায় ১লা জানুয়ারি থেকে ১৭ই জুন পর্যন্ত লাগাতার কৃষক আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। সম্প্রতি একটি রিপোর্ট থেকে এমনই জানা গিয়েছে। দুর্দশাগ্রস্ত কৃষকরা ঋণের দায়ে আত্মঘাতী হয়েছে বলেই অভিযোগ। রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে, পাহাড় প্রমাণ ঋণের বোঝার পাশাপাশি জমির অনুর্বরতা, তুলো শস্যের ক্ষতি, উৎপাদিত শস্যের জন্য সহায়ক মূল্য না পাওয়া, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, কৃষকদের আত্মহত্যার প্রাথমিক কারণ। যদিও সরকারের দাবি, মারাঠওয়াড়া অঞ্চলের ৯ লক্ষ কৃষকের শস্য ঋণ মকুব করে দেওয়া হয়েছে। তা সত্ত্বেও কেন এই আত্মহত্যা? তার অবশ্য কোনও স্পষ্ট জবাব মেলেনি।
রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে, বীডে সবথেকে বেশি সংখ্যক কৃষক আত্মহত্যা করেছে। সংখ্যাটা ৮১। তালিকায় রয়েছে ঔরঙ্গাবাদ (৬৭), ওসমানাবাদ (৬৪), পরভানি (৫৫), জলনা (৫৩), লাতুর (৪২), নান্দেদ (৪০)। হিঙ্গোলি (৪০)-তে সবথেকে কম সংখ্যক কৃষক আত্মহত্যা করেছে। আত্মঘাতী ৪৩৩ জন কৃষকের মধ্যে ২০৯ জনের পরিবার ক্ষতিপূরণ পেয়েছে। ১০১টি পরিবারকে ক্ষতিপূরণের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে এবং ১২৩টি ক্ষেত্রে কোনও তদন্তই হয়নি।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে