মুসলমানদের মাঝে লজ্জাহীনতা ও বেহায়াপনা প্রবেশ করানোর জন্য কাফেরদের প্রচেষ্টা


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, ‘লজ্জা হচ্ছে ঈমানের অঙ্গ’। মুসলমানদের যেহেতু ঈমান রয়েছে, সেহেতু উনাদের মধ্যে লজ্জা বিদ্যমান। কিন্তু কাফির-মুশরিকরা ঈমানহীন হওয়ার কারণে চরম লজ্জাহীন ও বেহায়া হয়ে থাকে। আর তাই তারা সবসময় চায় মুসলমানরাও যেন তাদের মতো হয়ে যায়।
এ সম্পর্কে মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক ফরমান:
১) “তারা এটাই কামনা করে যে, তারা যেরূপ কুফরী করেছে তোমরাও সেইরূপ কুফরী করো, যাতে তোমরা তাদের সমান হয়ে যাও।” (পবিত্র সূরা নিসা শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ৮৯)
২) “ইহুদী-নাছারা তথা আহলে কিতাবদের মধ্যে অনেকেই প্রতিহিংসাবশতঃ চায় যে, মুসলমান হওয়ার পর তোমাদের কোনো রকমে কাফির বানিয়ে দিতে।” (পবিত্র সূরা বাক্বারা শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ১০৯)
এরই ধারাবাহিকতায় এ দেশেরই অনেক মুনাফিক কাফিরদের সাথে হাত মিলিয়ে নানাভাবে বাংলাদেশীদের লজ্জা তুলে দেয়ার ধান্দায় নেমেছে। বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে তারা প্রচার করছে, এক মেয়ে তার বাবার কাছে তার গোপন বিষয় তুলে চিঠি লিখছে। এখানে একটা বিষয়, কোনো মেয়ে তার গার্জিয়ানকে তার গোপন কোনো কথা বলতেই পারে, যেটা চিরজীবন গোপনই থাকে। কিন্তু সেটা মিডিয়ায় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে প্রকাশ্যে প্রচার-প্রসার করা দুরভিসন্ধিমূলক ছাড়া অন্যকিছু নয়। উদ্দেশ্য, সকল মেয়ে যেন এখন থেকে ওই গোপন বিষয়টা বাবাদের কাছে প্রকাশ্যে উচ্চারণ করতে উৎসাহিত হয়।
এ ধরণের চক্রান্তমূলক বিজ্ঞাপন, প্রচারনা প্রত্যাহার করে এবং এর সাথে সংশ্লিষ্টদের শাস্তির আওতায় আনা জরুরী।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে