মোছ রাখার ব্যাপারে শরয়ী বিধান 


মোছ বা গোফ ছোট ছোট করে ভ্রুর ন্যায় রাখতে হবে। মোছ অধিক লম্বা রাখা যেরূপ নাজায়িয তদ্রুপ সম্পূর্ণ চেছে ফেলাও নাজায়িয। গ্রহণযোগ্য মতে মোছ চেছে ফেলা বা মু-ন করা মাকরূহ তাহরীমী ও বিদয়াতে সাইয়্যিয়াহ, কারো কারো মতে হারাম। হযরত যায়িদ ইবনে আক্কাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত রয়েছে, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, যে ব্যক্তি স্বীয় মোছ মুণ্ডন করে সে আমার উম্মতের অন্তর্ভুক্ত নয়। (আহমদ, নাসায়ী, তিরমীযী শরীফ)
উল্লেখ্য, কেউ কেউ মনে করে থাকে, মোছ ভেজা পানি পান করা নাজায়িয তাদের এ ধারণা শুদ্ধ নয়। কারণ মোছ যত ছোট থাকুক না কেন পানি পান করার সময় তাতে লাগবেই বা স্পর্শ করবেই। কাজেই মোছ পানি পান করা নাজায়িয নয়।
মোট কথা, সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি, হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনারা এবং হযরত ইমাম মুজতাহিদ আউলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিম উনারা সকলেই মোছ ছোট করে রাখতেন উনার কেউই মোছ মুণ্ডন করেননি। কাজেই মোছ ছোট ছোট করে রাখাটাই সুন্নত মুবারক উনার অন্তর্ভুক্ত। মহান আল্লাহ পাক তিনি সকল মুসলমান উনাদের সুন্নত মুবারক উনার আমল করার তাওফীক দান করুন। আমীন!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে