যদিও সে এমপি-মন্ত্রী বা সরকার প্রধান হোক না কেন- মূর্তিপূজায় সাহায্যকারী সকলেই মূর্তিপূজারি ও মুশরিকের অর্ন্তভুক্ত


পবিত্র দ্বীন ইসলাম মহানা আল্লাহ পাক উনার একমাত্র মনোনীত দ্বীন। মুসলমান মাত্রই পবিত্র দ্বীন ইসলাম ব্যতীত অন্য কিছুই কল্পনা করতে পারে না। কোনো মুসলমান মূর্তিপূজায় বৌদ্ধ পুর্ণিমায় কিংবা ক্রিসমাসে অংশগ্রহণ করে আর্থিক সাহায্য করে, তাহলে সে পবিত্র দ্বীন ইসলাম থেকে খারিজ হয়ে যাবে, তা সে সরকার তথা রাজা-বাদশাহ হোক না কেন। বর্তমানে অতিউৎসাহী সব ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপনকারী পাঁচমিশালী মুসলমান সরকারকে দেখা যাচ্ছে যে, তারা মূর্তিপূজা পালনে আর্থিক সাহায্যসহ সার্বিক সাহায্য করে থাকে; এমনকি মন্দিরেও ভোজ করতে যায়; এতে কি তারা মূর্তিপূজক হবে না? অবশ্যই তারা মূর্তিপূজকই হবে। যা পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদীছ শরীফ উনাদের সরাসরি বিরোধিতার শামিল।
কাজেই তারা মুসলমান থাকতে পারে না। নতুন করে তওবা করে কালিমা পড়ে মুসলমান হতে হবে। অন্যথায় ঈমানদার হিসেবে মৃত্যুবরণ করা কঠিন হবে।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে