যারা দাঁড়ি কামায় তারা অভিশপ্ত ও শয়তানের বন্ধু


আল্লাহপাক কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন,
لَقَدْ خَلَقْنَا الْإِنسَانَ فِي أَحْسَنِ تَقْوِيمٍ
অর্থ: আমি মানুষদেরকে উত্তম আকৃতিতে তৈরী করেছি।
সূরা- ত্বীন শরীফ – আয়াত শরীফ নং- ০৪

আর ইবলিশ মানুষদেরকে আকৃতি বিকৃতি করার বিষয়ে ওয়াদা করেছে। যেমন, পূরূষের দাঁড়ি কামানো, মেয়েদের মত লম্বা চুল রাখা, মেয়েরা পূরূষের সুরূত ধারন করা করা।

وَلَآمُرَنَّهُمْ فَلَيُغَيِّرُنَّ خَلْقَ اللَّـهِ ۚ وَمَن يَتَّخِذِ الشَّيْطَانَ وَلِيًّا مِّن دُونِ اللَّـهِ فَقَدْ خَسِرَ خُسْرَانًا مُّبِينًا

অর্থ: আর তাদেরকে আল্লাহ পাক উনার সৃষ্ট আকৃতি পরিবর্তন করার আদেশ দেব। যে কেউ আল্লাহ পাক উনাকে ছেড়ে শয়তানের বন্ধু হয় তারা প্রকাশ্য ক্ষতিতে পতিত হয়।
সূরা নিসা শরীফ- আয়াত শরীফ নং- ১১৯

উপরোক্ত আয়াতের প্রথম অংশে ইবলিশের ওয়াদা উল্লেখ করা হয়েছে। ২য় অংশে আল্লাহ পাক উনার সতর্কবানী উল্লেখ করা হয়েছে।
আল্লাহ পাক মানুষকে উত্তম আকৃতিতে তৈরী করেছেন। আর ইবলিশ দাঁড়ি কামিয়ে দেয়ার জন্য মানুষকে কুমন্ত্রনা দিয়ে থাকে।
হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, হযরত ইবনে আব্বাস রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু ইরশাদ মুবারক করেন ” হুযূরপাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অভিশাপ দিয়েছেন ওই সকল পূরূষদেরকে যারা মেয়েদের সূরূত ধারন করে এবং ওই সকল মেয়েদেরকে যারা পূরূষের সুরূত ধারন করে।”
(বুখারী শরীফ)

তাহলে যারা দাঁড়ি কামায়, তারা যেন সাবধান হয়ে যায়। তওবা করে দাঁড়ি রেখে দেয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। নইলে লা’নতগ্রস্থ হওয়া ছাড়া কোন গতি নেই।(নাউযুবিল্লাহ)

 

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে