যেসব দোষযুক্ত পশু কুরবানী করা নিষেধ


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে-
عَنْ حَضْرَتْ عَلِيٍ عَلَيْهِ السَّلَامُ قَالَ أَمَرَنَا رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ أنْ نَسْتَشْرِفَ الْعَيْنَ وَالْأُذُنَ وَلَا نُضَحِّي بِمُقَابَلَةٍ وَلَا مُدَابَرَةٍ وَلَا شَرْقَاءَ وَلَا خَرْقَاءَ
অর্থ:- “হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন- নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি আমাদেরকে নির্দেশ মুবারক দিয়েছেন, আমরা যেন (পবিত্র কুরবানীর পশুর) চোখ ও কান উত্তমরূপে দেখে নেই এবং আমরা যেন পবিত্র কুরবানী না করি সেসব পশু দ্বারা, যেসব পশুর কানের অগ্রভাগ ও শেষ ভাগ কাটা অথবা কান গোলাকার ছিদ্র বা যার কান লম্বাভাবে কাটা।” (তিরমিযী শরীফ, আবু দাউদ শরীফ, নাসায়ী শরীফ ও দারিমী শরীফ)
অন্য পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে-
عَنْ حَضْرَتْ عَلِيٍ عَلَيْهِ السَّلَامُ قَالَ نَهَى رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ أَنْ نُضَحِّيَ بِأَعْضَبَ الْقَرْنِ وَالْأُذُنِ
অর্থ:- “হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন- নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি নিষেধ করেছেন, আমরা যেন শিং ভাঙ্গা ও কান কাটা পশু দ্বারা পবিত্র কুরবানী না করি।” (ইবনে মাজাহ শরীফ)
আরো ইরশাদ মুবারক হয়েছে,
عَنِ حَضْرَتْ الْبَرَاءِ بْنِ عَازِبٍ رَضِيَ اللهُ عَنْهُ أَنَّ رَسُولَ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ سُئِلَ مَاذَا يُتَّقَى مِنَ الضَّحَايَا؟ فَأَشَارَ بِيَدِهِ وَقَالَ أَرْبَعًا الْعَرْجَاءُ الْبَيِّنُ ظَلْعُهَا، وَالْعَوْرَاءُ الْبَيِّنُ عَوَرُهَا، وَالْمَرِيضَةُ الْبَيِّنُ مَرَضُهَا، وَالْعَجْفَاءُ الَّتِي لَا تُنْقِي
অর্থ:- “হযরত বারা ইবনে আযিব রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে জিজ্ঞাসা করা হলো, ‘পবিত্র কুরবানীর জন্য কোন রকমের পশু হতে বেঁচে থাকা উচিত?’ নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি আপন হাত মুবারক দ্বারা ইশারা করে বললেন, ‘চার রকমের পশু হতে। যেমন- ১. খোড়া- যার খোঁড়ামি সুস্পষ্ট। ২. কানা- যার কানামি সুস্পষ্ট। ৩. রুগ্ন- যার রোগ সুস্পষ্ট। ৪. দুর্বল- যার হাড়ের মজ্জা নাই অর্থাৎ শুকিয়ে গেছে।” (তিরযিমী শরীফ, আবু দাউদ শরীফ, নাসাঈ শরীফ, ইবনে মাজাহ শরীফ, দারিমী শরীফ)
অর্থাৎ নিম্নোক্ত দোষ-ত্রুটিযুক্ত পশু কুরবানী করলে কুরবানী ছহীহ হবে না-
১. দৃষ্টিহীনতা সুস্পষ্ট, ২. অতি রুগ্ন, ৩. খোড়া, ৪. এমন জীর্ণ-শীর্ণ যে তার হাড়ে মগজ নেই, ৫. কানের অগ্রভাগ অথবা পশ্চাদভাগ কর্তিত, ৬. কান ফাঁড়া, ৭. কান গোলাকার ছিদ্রযুক্ত, ৮. শিং ভাঙ্গা, ৯. পঙ্গু, ১০. চক্ষুহীন।

Views All Time
2
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে