যে ব্যক্তি আখেরী যামানায় ফিতনা ফাসাদের যুগে একটি সুন্নত মুবারক আঁকড়ে ধরে থাকবে সে ১ শত শহীদ উনাদের মর্যাদা পাবে।


পবিত্র হাদীছ উনার মাঝে বর্ণিত আছে, “যে ব্যক্তি আখেরী যামানায় ফিতনা ফাসাদের যুগে একটি সুন্নত মুবারক আঁকড়ে ধরে থাকবে সে ১ শত শহীদ উনাদের মর্যাদা পাবে।” (মিশকাত শরীফ)
চকি বা খাটতো আমরা সবাই ব্যবহার করি, কিন্তু চৌকির মাপটা ও ডিজাইনটা যদি সুন্নত মোতাবেক হয়ে যায়, তবে একই সাথে আমাদের অনেকগুলো সুন্নত পালন হয়ে যাবে। শুধু তাই নয়, পালিত হবে মহান আল্লাহ পাক উনার আদেশ মুবারকও। সুবহানাল্লাহ!
তাহলে জেনে নিন সুন্নতি চৌকির বর্ণনা:
নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার চকি ছিল ৪ পায়া বিশিষ্ট এবং কাঠের তৈরী।
পরিমাপ: একাকী ব্যবহারের জন্যে সাড়ে ৪ হাত লম্বা ও ২ হাত চওড়া এবং আরেকটি সাড়ে ৪ হাত লম্বা এবং প্রায় সাড়ে ৩ হাত চওড়া ছিল। উভয়েরই উচ্চতা ১ বিঘত।
কাঠ: শাল, সেগুন বা শিল কড়ই গাছের কাঠ।
(সীরাতুন নবী, এবং আরো অন্যান্য সীরত গ্রন্থসমূহ)

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে