রাষ্ট্রধর্ম ‘ইসলাম’ থাকবে কিনা তা নির্ভর করছে কেবল ৩ জন বিচারকের সিদ্ধান্তের উপর; তবে কি গণতন্ত্র জনগণকে ধোঁকা দেয়ার যন্ত্র?


রাষ্ট্রধর্ম ‘ইসলাম’ থাকবে কিনা তা নির্ভর

আজ ২৮ মার্চ (২০১৬ ঈসায়ী) সুপ্রীম কোর্টের তিনজন বিচারক রায় দেবে ৯৮ ভাগ মুসলমানের দেশে সংবিধানে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম থাকবে কিনা। যদিও গণতন্ত্রের ওয়াদা মোতাবেক তা ৯৮ ভাগ মুসলমানের মতামতের ভিত্তিতেই হওয়া উচিত ছিলো। কিন্তু দেশকে গণতন্ত্রের দেশ বলা হলেও রাষ্ট্রধর্মের মতো হাইলি সেন্সিটিভ বিষয়টি অর্থাৎ ৯৮ ভাগ মুসলমান অধ্যুষিত দেশে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম থাকবে কিনা তার সিদ্ধান্ত নির্ভর করছে কেবল তিনজন বিচারকের সিদ্ধান্তের উপর।
এখানে স্পষ্টভাবেই একটি কথা বলতে হয় যে, রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম শুধু এই তিন বিচারকই পালন করে না, বরং বাংলাদেশের ৯৮ ভাগ মুসলমানের প্রাণের ধর্ম ইসলাম। তাই মনগড়াভাবে ১৫টা ইসলামবিদ্বেষীর দায়ের করা রিটের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম তুলে দেয়ার এখতিয়ার কারো নেই। গণতন্ত্র মোতাবেক কোনো বিচারকদের এককভাবে এ বিষয় রায় দেয়া সংবিধান সম্মত নয়।
অতএব অনাকাঙ্খিত রায় দিলেই যে সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমান মেনে নিবে এমনটা ভাবলে মস্তবড় ভুল হবে। বিক্ষুব্ধ মুসলমানের তীব্র আন্দোলনে সরকারের ক্ষমতার মসনদও নড়ে উঠতে পারে।
Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে