রূপ প্রদর্শনের মনস্তাত্ত্বিক দিক সত্যিই লজ্জাজনক


Inferiority Complex অর্থাৎ হীনমন্যতা এক ধরনের মানসিক ব্যাধি। এই ব্যাধি থেকেই নানা উপসর্গ তৈরি হয়। সৃষ্টিগতভাবেই নারী জাতির কম বেশি এই প্রবণতাটা রয়েছে। মহিলারা মনে করে তারা সুন্দর না। আর এই মানসিক অবস্থার কারণে তারা সাজ গোজ করে থাকে। পুরুষদের এই সমস্যা না থাকার কারণে তারা সাজ-গোজ বা রূপচর্চা করে না। অবশ্য যে সব পুরুষের মধ্যে অর্থাৎ শরীর থেকে এক ধরনের রস বের হয় বা মেয়েলী আচরণের সৃষ্টি করে থাকে। রূপচর্চা মহিলাদের মজ্জাগত ব্যাপার। একটু হলেও সাজ-গোজ করতে হবে। এই সাজ-গোজের মানসিকতার একটি কারণও আছে। সৃষ্টিগতভাবে পুরুষ মহিলাদের চেয়ে সুন্দর। প্রাণী জগতে যে কোনো পশু পাখি বা জলজ প্রাণীর দিকে লক্ষ্য করলে এই সত্যটি প্রমাণিত হবে। ময়ূরের পেখম আছে ময়ূরীর নেই, সিংহের কেশর আছে সিংহীর কেশর নেই। এমনিভাবে যে কোনো প্রাণীর দিকে তাকালে দেখা যাবে পুরুষটা বেশি সুন্দর। এই কারণে মহিলারা বেশি বেশি সাজ-গোজ করে থাকে। মহিলাদের সাজ-গোজের ব্যাপারটা কোনো দেখাদেখি না। এটা মহিলাদের স্বভাব সুলভ অবস্থা। কিন্তু রূপ প্রদর্শন কোনো স্বাভাবিক অবস্থা নয়। সাধারণত মহিলারা যখন গৃহ অভ্যন্তরে থাকে বা স্বামীর সান্নিধ্যে থাকে তখন সাদা মাটা বেশ ভূসায় থাকতে পছন্দ করে। যখন গৃহ থেকে বের হয় তখন রূপচর্চা যেন আর শেষ হয় না! মানব সভ্যতার শুরু থেকেই মহিলাদের রূপ চর্চা ও প্রদর্শনী চলে আসছে কিন্তু সে কালে সব কিছুতে শালীনতা ছিল। তথাকথিত আধুনিকতা মহিলাদের শালীনতা বোধ কেড়ে নিয়েছে। সিনেমার মেয়েদের রূপ প্রদর্শনের পেছনে তাদের পেশাগত সফলতার একটা কারণ আছে। নিষিদ্ধ পল্লীর মেয়েরা রূপ প্রদর্শন করে পেশাগত কারণে, যাত্রার মেয়েদের ওই একই কারণ। কিন্তু সাধারণ ভদ্র ঘরের মেয়েরা কখনও উগ্রভাবে রূপ প্রদর্শন করে ঘরের বাইরে ঘুরে বেড়ায় কি কারণে? তাদের বেগানা পুরুষকে রূপ প্রদর্শন করে আকৃষ্ট করার কি কোনো কারণ আছে? এ ধরনের রূপ প্রদর্শন শুধু সমাজে ফিতনা ও অশান্তি সৃষ্টি করা ছাড়া আর কিছুই করে না।
একটু গভীরভাবে চিন্তা করলে বেপর্দা মহিলারা সহজেই বুঝবে- তাদের রূপ প্রদর্শন কতটা লজ্জাজনক এবং অসম্মানজনক। মহিলাদের সম্ভ্রম রক্ষার জন্যই তাদের পর্দায় এবং গৃহ অভ্যন্তরে থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মুসলমান নারীদের মুসলমান হয়েই বাঁচতে হবে। নারীত্বের মর্যাদা সমুন্নত রাখতে নারীদের পর্দা পালন করতেই হবে। পর্দার কোন বিকল্প নেই।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে