লাকসামে পবিত্র কোরআন শরীফ এর বিরুদ্ধে নীচ, যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য শিক্ষকের অবমাননাকর মন্তব্য (নাউযুবিল্লাহ)


কুমিল্লার লাকসাম পৌর এলাকার লাকসাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য কৃষ্ণ চন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে শ্রেণীকক্ষে কোরআন অবমাননাকর মন্তব্য করার অভিযোগ উঠেছে। এ অভিযোগে গতকাল ওই স্কুলের সামনে ছাত্র-অভিভাবক ও স্থানীয় জনতা বিক্ষোভ মিছিল করে ওই শিক্ষকের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। এ ঘটনায় ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।
স্থানীয় সূত্র জানায়, সোমবার বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ক শাখায় পাঠদান করতে গিয়ে যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য ইংরেজি শিক্ষক কৃষ্ণ চন্দ্র সরকার বলেছে, ‘মক্কা মদিনা শয়তানের আড্ডাখানা, সৌদি আরব শয়তানের দেশ’ (নাউযুবিল্লাহ)। এ সময় তিনি পবিত্র কোরআন শরীফ এবং আল্লাহর রাসুল সম্পর্কেও বিরূপ মন্তব্য করে (নাউযুবিল্লাহ)। স্কুলের শিক্ষার্থীরা বাড়ি ফিরে ওই শিক্ষকের এ ধরনের মন্তব্যের বিষয়টি তাদের অভিভাবকদের জানায়। পরদিন স্কুল বন্ধ থাকায় গতকাল তারা স্কুলের শিক্ষকের ওই মন্তব্যের প্রতিবাদ জানান। একপর্যায়ে স্কুলের প্রধান ফটকের বাইরে অভিভাবক ও স্থানীয় জনতা জড়ো হয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এ সময় তারা ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করে এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। খবর পেয়ে স্থানীয় উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনসহ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহম্মদ  শাহগীর আলম জানান, এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার গাউসুল আজম, স্কুল ম্যানেজিং কমিটির একজন ও একজন শিক্ষক সমন্বয়ে ৩ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করে ৩ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে এবং অভিযুক্ত শিক্ষকের পাঠদান স্থগিত রাখা হয়েছে। প্রতিবেদন পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।
এদিকে পরিস্থিতি সামাল দিতে কর্তৃপক্ষ গতকাল দুপুরেই স্কুল ছুটি দিয়ে দেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য শিক্ষক কৃষ্ণ চন্দ্র সরকার বিষয়টি অস্বীকার করেছে। এদিকে বিকাল পর্যন্ত এ নিয়ে স্থানীয় এলাকায় উত্তেজনা চলছে।

 

 

সূত্র : আমার দেশ  ২২. ০৩. ২০১২

Views All Time
2
Views Today
3
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+