শফীর বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে


হেফাজতে ইসলামের আমির ও হাটহাজারি মাদ্রাসার মহাপরিচালক শায়খুল হাদিস আল্লামা শাহ আহমদ শফীর বিরুদ্ধে ‘আল্লাহর শানে অবমাননা’র মামলা করা হচ্ছে।

শাহ আহমদ শফী তার ‘ভিত্তিহীন প্রশ্নের জবাব’ বইতে মহান আল্লাহ-তায়ালার শানে অবমাননাকর বক্তব্য দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন এই মামলার অন্যতম উদ্যোক্তা বাদী ইমরান হোসাইন তুষার।

তিনি আরটিএনএন- কে জানিয়েছেন, ‘রবিবার মামলাটি দায়ের করা হবে এবং এর সব প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে।’

এ মামলায় বাদী পক্ষের উকিল হিসেবে থাকছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার তানিয়া আমীর।

ইমরান হোসাইন তুষার আরও বলেন, ‘ব্যারিস্টার তানিয়া আমীরের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে, তিনি এ মামলায় কাজ করতে রাজি হয়েছেন।’

‘ভিত্তিহীন প্রশ্নের জবাব’ বইয়ের দ্বিতীয় পৃষ্ঠায় এমন কথা বলা হয়েছে বলে জানান ইমরান। বইটি মূল উর্দু ‘বেবুলিয়া এলজামাত কি তরবিত’ এর বাংলা অনুবাদ। ১৯৯৫ সালে ‘ভিত্তিহীন প্রশ্নাবলীর মুলোৎপাটন’ নামে বইটির বাংলা অনুবাদ করেন ইসলামি ও সমমনা ১২দলের জাফরুল্লাহ খান।

বইটির অনুবাদক মাওলানা জাফরুল্লাহ খান ও প্রকাশক মাওলানা ইউনুসকেও মামলায় বিবাদী হিসেবে রাখা হচ্ছে বলে জানা গেছে। মাওলানা ইউনুস হাটহাজারি মাদ্রাসার শিক্ষক হিসেবে কর্মরত।

সূত্র জানায়, এ মামলায় আরও বাদী করা হচ্ছে- ইসলামী ছাত্রসেনা ঢাকা মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক ইমরান হোসাইন তুষারসহ বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক সেলিম মিয়াজী, ইসলামী ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক জাফর আলম সিদ্দিকী, ইমলামী ফ্রন্টের চট্টগ্রাম মহানগর সাধারন সম্পাদক মাওলানা ইকবাল হোসাইন কাদেরী, জাকের পার্টির চেয়ারম্যানের প্রেস সচিব শামীম হাওলাদার, আঞ্জুমানে গাউসুল আজম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি আরিফ বিল্লাহ রব্বানী ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবুল আজাদ।

‘আল্লাহ-তায়ালা মিথ্যা বলতে পারেন এমনকি ওয়াদারও বরখেলাফ করতে পারেন, কিন্তু করেন না।’ একটি প্রশ্নের জবাব আকারে বইটিতে বলা হয়েছে বলে দাবি করেন ইমরান।

তিনি বলেন, ‘এর মাধ্যমে বইয়ের লেখক শাহ আহমদ শফী আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের শানে অবমাননা করেছেন।’

আগামীকাল রবিবার সকাল ১১টার দিকে মামলা দায়েরের পর সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানা গেছে।

News source

Views All Time
2
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+