শাক দিয়ে মাছ ঢাকা না গেলেও, চেষ্টা কিন্তু ঠিক-ই অব্যাহত আছে !


ইতিহাস বিকৃতি নতুন কিছু নয়, বেধর্মীরা কিছু পারুক না পারুক মুসলানদের বীরত্বগাথাঁ ইতিহাস খুব ভালো বিকৃত করতে পারে , এর প্রমান মিলে অন-লাইন ইউটিউবে।
 
“যদি তোমরা ইসলাম গ্রহণ করো তাহলে কাপড় পড়ার অধিকার পাবে”। হযরত টিপু সুলতান রহমতুল্লাহি আলাইহির এই বক্তব্যটি ঠাওরিয়ে হিন্দু ও বৃটিশরা উনাকে অত্যাচারী শাসক বলে সাব্যস্ত করতে চায়।
 
অথচ ইতিহাস বলছে ভিন্ন কিছু।উনার এ ঘোষনায় সে সময় হাজার হাজার হিন্দু পরিবার মুসলমান হয়েছিল, সত্য। কিন্তু এর পিছনে লুকিয়ে আছে, হিন্দুদের নির্লজ্জ এক ইতিহাস।
এ সম্পর্কে হিন্দু ইতিহাসবিদ সুরজিত দাসগুপ্ত বলেছে, ‘ঐ সময় হিন্দু নিম্নবর্ণের লোকদের উর্ধাঙ্গ অনাবৃত রাখতে হতো। সে সময় ভারতবর্ষের কেরালাতে অমুক হিন্দু নারী ইসলাম গ্রহণ করেছে এটা বলা প্রয়োজন ছিলো না। বলতে হতো শুধু ‘কুপপায়ামিডুক’ শব্দখানা। এ শব্দখানার অর্থ , গায়ে জামা চড়িয়েছে’।
(সূত্রঃ ভারতবর্ষ ও ইসলাম)
 
এমনকি হিন্দুদের নির্লজ্জ এ নীতির জের ধরে ১৮৫৯ সালে রক্তক্ষয়ী দাঙ্গাও হয়েছিল , যা ইতিহাসে ‘কাপড়ের দাঙ্গা’ নামে পরিচিত।
মূলত হযরত টিপু সুলতান রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি ছিলেন একজন দেশপ্রেমিক,  বিশিষ্ট বীরযোদ্ধা, আলেম, কবি আর ভারতবর্ষেবৃটিশ সম্রাজ্য সম্প্রসারণে সবচেয়ে বড় বাধা। হযরত টিপু সুলতান রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার নামে মিথ্যাচারে মালউনরা চাচ্ছে তাদের পিছনের নির্লজ্জ ইতিহাস ঢাকা দিতে ।
Views All Time
1
Views Today
3
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে