শয়তান মানুষের প্রকাশ্য শত্রু


 

মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ان الشيطان لكم عد وفاتذوه عدوا অর্থ: “শয়তান তোমাদের প্রকাশ্য শত্রু কাজেই শয়তানকে শত্রু হিসেবে গ্রহণ করো।” পবিত্র সুরা ফাতির শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ-৬) আর পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে উল্লেখ আছে, “মানুষ যখন রাগান্বিত হয়, তখন শয়তান তাকে বলের মতো চক্কর খাওয়াতে থাকে। সে শয়তানের তাঁবেদার হয়ে কি করে নিজেও বুঝতে পারে না।” এ প্রসঙ্গে একটা ঘটনা উল্লেখ আছে, একবার এক ওলীআল্লাহ তিনি রাস্তা দিয়ে যাচ্ছেন। তিনি দেখলেন যে- ইবলিস দাঁড়িয়ে আছে। তখন তিনি বললেন- রে ইবলিস! এখানে কি করছিস? নিশ্চয়ই কোনো ফিতনা লাগিয়েছিস। সে বললো- না। তখন তিনি সামনে গেলেন। গিয়ে দেখতে পেলেন মারামারি হচ্ছে। তিনি এসে ইবলিসকে বললেন, এ গন্ডগোলের মূল কি? সে বললো- আমি মারামারি লাগাইনি। তবে ছোট একটা কাজ করেছি। দুই বাড়ির সীমানার মধ্যে এক ফোটা মিষ্টির রস ফেলে দিয়েছি। সেখানে অনেক পিঁপড়া আসলো। তা দেখে ইঁদুর আসলো, তা দেখে বিড়াল আসলো। তা দেখে কুকুর আসলো। কুকুর বিড়ালকে কামড় দিলো, আর বিড়ালওয়ালা কুকুরের মাথায় বাড়ি দিলো। কুকুরওয়ালা রাগে বিড়ালওয়ালার মাথায় বাড়ি দিয়ে তাকে হত্যা করে ফেললো। মূলত, ইবলিসের কাজগুলি ঠিক এরূপই সূক্ষ্ম হয়ে থাকে। ইবলিস মানুষের মধ্যে প্রবেশ করে ওয়াসওয়াসা দেয় এবং ফিতনা-ফাসাদ সৃষ্টি করে।
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে