সউদী আরব চন্দ্র উদয়ের দেশ নয় যে, সেখান থেকে প্রতি মাসে সবার আগে নতুন চাঁদ দেখা যাবে


জাপানকে বলা হয় সূর্যোদয়ের দেশ অর্থাৎ সূর্যোদয়ের দেশ নির্দিষ্ট রয়েছে। কিন্তু চন্দ্রোদয়ের জন্য অর্থাৎ নতুন চাঁদ সর্বপ্রথম কোন দেশে দেখা যাবে সেটা নির্দিষ্ট নেই। আর সূর্যোদয়ের দেশ জাপানের মতো সউদী আরব চন্দ্রোদয়ের দেশ নয় যে, সেখান থেকে সবসময় সবার আগে নতুন চাঁদ দেখা যাবে। কেননা সউদী আরব হচ্ছে পৃথিবীর মধ্যবর্তী দেশের অন্তর্ভুক্ত। সউদী আরবের পূর্বেও দেশ রয়েছে এবং পরেও দেশ রয়েছে। সউদী আরবের সাথে বাংলাদেশের সময়ের পার্থক্য মাত্র ৩ ঘণ্টা। তাই সাউদী আরব সবসময় বাংলাদেশের আগে চাঁদের তারিখ ঘোষণা করবে এটা শুদ্ধ নয়। সাধারনতঃ বাংলাদেশের সাথেই সউদী আরব চাঁদ দেখার কথা এবং তারিখ ঘোষণা করার কথা। কিন্তু সউদী আরব শরীয়তসম্মতভাবে চাঁদ না দেখেই তারিখ ঘোষণা করার কারণে বাংলাদেশের সাথে চাঁদের মাসের পার্থক্য হয়ে থাকে। মূলতঃ সউদী ওহাবী সরকার কখনোই চাঁদ দেখে মাস শুরু করে না। মুসলমানদের ইবাদত-বন্দেগী এবং বিশেষ করে পবিত্র হজ্জের আমল বরবাদ করার জন্য তারা ইহুদী-নাছারাদের প্রবর্তিত ক্যালেন্ডার অনুসরণ করে চাঁদের তারিখ ঘোষণা করে। নাউযুবিল্লাহ!
অতএব, সকল মুসলমানের জন্য ফরজ হচ্ছে, সউদী ওহাবী মুনাফিক সরকারের এহেন ষড়যন্ত্রকে নস্যাৎ করে দেয়া। নাউযুবিল্লাহ

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে