সম্মানিত ইসলামী শরীয়তে খেলাধুলা হারাম। একটি হারাম খেলা বহু হারামকে টেনে আনে


পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “হারাম থেকে হারামেরই সৃষ্টি হয়।”
এ চিরন্তন সত্য কথার আলোকে হারাম খেলাধুলা থেকে আরও বহু হারাম পয়দা হয়। যেমন-
১. সময় নষ্ট হয়। ২. পয়সা নষ্ট হয়। ৩. কাজ নষ্ট হয়। ৪. নামায কাযা হয়। অনেক সময় তরকও হয়। ৫. ছতর খোলা হয়। ৬. কুসঙ্গে থাকা হয়। ৭. কাফিরদের নিয়মাবলী গ্রহণ করা হয়। ৮. স্বাস্থ্য নষ্ট হয়। ৯. হারাম প্রতিযোগিতা করা হয়। ১০. বাজি ধরা হয়। ১১. পরস্পরের প্রতিহিংসা বিদ্বেষ পয়দা হয়। ১২. সমাজে ফিতনার সৃষ্টি হয়। ১৩. বেদ্বীন-বদদ্বীনী আমল করা হয়। ১৪. রং ছিটাছিটি করা হয়। ১৫. বেপর্দা হয়। ১৬. হারাম কাজে উৎসাহিত করা হয়। ১৭. হারাম কাজে বাহবা দেয়া হয়। ১৮. হাতে তালি দেয়া হয়। ১৯. শরীয়তের খেলাপভাবে অভিনন্দন জানানো হয়। ২০. হারাম কাজে আর্থিক সহযোগিতা করা হয়। ২১. হারাম কাজে খুশি প্রকাশ করা হয়। ২২. হারামকে হালাল বলা হয়। ২৩. পবিত্র ঈমান নষ্ট হয়। ২৪. বিধর্মীদের অনুসরণ করা হয়। ২৫. টিভি দেখা হয়। ২৬. মারামারি-কাটাকাটি করা হয়। ২৭. খুন-খারাবি করা হয়। ২৮. রক্ত প্রবাহিত করা হয় ইত্যাদি।
একটি হারাম যদি এতোগুলো হারামকে সম্পৃক্ত করে, তাহলে সেই হারামকে কিভাবে মুসলমানগণ গ্রহণ করতে পারে? কস্মিনকালেও তা গ্রহণ করতে পারে না।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে