সর্বশ্রেষ্ঠ নিদর্শন মুবারক


কুল মাখলূক্বাতের যিনি খলিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক সুবহানাহূ ওয়া তায়ালা তিনি উনার শিআর বা নিদর্শনসমূহকে তা’যীম-তাকরীম বা সম্মান করার জন্য আদেশ মুবারক করেছেন।
আর বলার অপেক্ষা রাখে না, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার এবং উনার পূত-পবিত্র ও সম্মানিত হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের সাথে নিসবতযুক্ত বিষয়সমূহ হচ্ছেন মহান আল্লাহ পাক উনার সর্বশ্রেষ্ঠ নিদর্শন মুবারক। সুবহানাল্লাহ! তাই নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার যমীনে বা পৃথিবীতে আগমন মুবারক উনার সম্মানিত দিন, সম্মানিত তারিখ ও সম্মানিত মাস সবচেয়ে সম্মানিত ও শ্রেষ্ঠ নিদর্শন মুবারক উনার অন্তর্ভুক্ত। সুবহানাল্লাহ!
ফলে, উম্মত তথা কায়িনাতবাসী সকলের জন্য ফরযে আইন হচ্ছে উক্ত সম্মানিত দিন, সম্মানিত তারিখ ও সম্মানিত মাস উনাদেরকে তা’যীম-তাকরীম করা, সম্মান প্রদর্শন করা। আর এ লক্ষ্যেই যামানার সুমহান ইমাম ও মুজতাহিদ, খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইউস সুন্নাহ, মুর্শিদে আকবর, মুজাদ্দিদে আ’যম, হুজ্জাতুল ইসলাম, কুতুবুল আলম, ক্বইয়্যুমুয যামান, জাব্বারিউল আউওয়াল, ক্বইউয়্যুল আউওয়াল, সুলত্বানুন নাছীর, সুলত্বানুল আউলিয়া ওয়াল মাশায়িখ, জামিউল আলক্বাব, হাবীবুল্লাহ, আখাচ্ছুল খাছ আহলি বাইত ও আওলাদে রসূল, নূরে মুকাররম সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি মহাসম্মানিত সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ, সাইয়্যিদে ঈদে আকবর, সাইয়্যিদে ঈদে আ’যম, পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সুমহান সম্মানার্থে জারী করেছেন অনন্তকালব্যাপী সুমহান মাহফিল। সুবহানাল্লাহ!

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে