সর্বোত্তম ও সর্বশ্রেষ্ঠ আদর্শ মুবারক


মুসলমানরা মহান আল্লাহ পাক উনার প্রতি এবং উনার হাবীব হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি ঈমান আনার কারণে খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি মুসলমানদেরকে মুহব্বত করেন এবং তিনি চান মুসলমানরা যেনো উনার প্রিয় হাবীব হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে অনুসরণ অনুকরণ করে উনার নিয়ামতসমূহ উপভোগ করুক এবং সর্বপোরি উনার দীদার ও সন্তুষ্টি মুবারক লাভ করুক। এজন্য মহান আল্লাহ পাক তিনি মুসলমানদেরকে উদ্দেশ্য করে ইরশাদ মুবারক করেন, নিশ্চয়ই তোমাদের জন্য মহান আল্লাহ পাক উনার রসূল নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মধ্যে রয়েছে উত্তম আদর্শ।
অর্থাৎ মুসলমানদের জন্য নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আদর্শ ব্যতীত আর কারো আদর্শ গ্রহণ করা জায়িয নেই। মুসলমানদের জন্য একমাত্র অনুসরণীয়, অনুকরণীয় হচ্ছেন নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। কেননা উনার আদর্শ গ্রহণ করা বা উনাকে অনুসরণ-অনুকরণ করার অর্থই হচ্ছে স্বয় খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনাকে অনুসরণ করা। যেমন কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, যে নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আনুগত্য বা অনুসরণ করলো সে প্রকৃতপক্ষে মহান আল্লাহ পাক উনারই আনুগত্য বা অনুসরণ করলো।
আরো ইরশাদ মুবারক হয়েছে যে নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আনুগত্য করবে মহান আল্লাহ পাক উনাকে মুহব্বত করবেন, উনার গুনাহখাতা ক্ষমা করবেন এবং উনার প্রতি দয়ালু হবেন। সুবহানাল্লাহ!
মহান আল্লাহ পাক তিনি যাকে মুহব্বত করবেন, যার গুনাহখাতা ক্ষমা করবেন এবং যার প্রতি দয়ালু হবেন তার কোনোকিছুরই অভাব থাকতে পারে না। এবং কোনো চিন্তা পেরেশানীও থাকতে পারে না।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে