সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল আলামীন, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা, সাইয়্যিদাতুনা হযরত আন নূরুছ ছালিছাহ আলাইহাস সালাম উনার


যিনি খলিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,
وَالطَّيِّبَاتُ لِلطَّيِّبِينَ وَالطَّيِّبُونَ لِلطَّيِّبَاتِ
অর্থ: “পবিত্র পুরুষগণ উনাদের জন্য পবিত্রা নারীগণ আর পবিত্রা নারীগণ উনাদের জন্য পবিত্র পুরুষগণ উনাদেরকে তৈরি করা হয়েছে”। সুবহানাল্লাহ! (সম্মানিত সূরা নূর শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ২৬)

উক্ত পবিত্র আয়াত শরীফ উনার থেকে নিশ্চিত বুঝা যায় যে, যারা সম্মানিত ও পূত-পবিত্র আহলিয়া বা নারী উনাদের জন্য সম্মানিত ও পূত-পবিত্র আহাল বা পুরুষও রয়েছেন, আর যারা সম্মানিত পবিত্র আহাল বা পুরুষ উনাদের জন্য সম্মানিত পবিত্রা আহলিয়া বা নারীও রয়েছেন। সুবহানাল্লাহ!

আর বিশেষ করে যারা মহাসম্মানিত আহলে বাইতে রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারাতো সৃষ্টির শুরু থেকেই পবিত্র ও পবিত্রা হিসাবেই সৃষ্টি ও মনোনিত। সুবহানাল্লাহ! তাহলে সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা সাইয়িদাতুনা আন নূরুছ ছালিছাহ আলাইহাস সালাম যিনি স্বয়ং সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খতামুন নাবীইয়ীন, হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার লখতে জিগার কলিজার টুকরা মুবারক যিনি উনার সম্মানিত বানাত (মেয়ে) আলাইহাস সালাম তাহলে উনার পবিত্রতা কত বেমেছেল তা বলার অপেক্ষাই রাখেনা। সুবহানাল্লাহ! এবং উনার যিনি মহাসম্মানিত যাওজুম মুকাররম, সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নুরাইন আলাইহিস সালাম উনারও কত বেমেছাল পবিত্রতা তা বলার অপেক্ষা রাখে না। সুবহানাল্লাহ!
স্মরণীয় যে, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা, বিনতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত আন নূরুছ ছালিছাহ আলাইহাস সালাম উনার মহাসম্মানিত নিসবতে আযীম শরীফ অনুষ্ঠিত হয়েছিলেন, ৩য় হিজরী সনের, ৩রা শাহরুল আ’যম তথা পবিত্র রবীউল আউওয়াল শরীফ মাসের লাইলাতুল জুমুয়াহ (জুমুয়ার রাত) তথা ইয়াওমুল খমীস দিবাগত রাত মুবারক, বাদ মাগরিব। সুবহানাল্লাহ! সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার সাথে মহাসম্মানিত নিসবতে আযীম শরীফ অনুষ্ঠিত হওয়ার সময় উম্মু আবীহা সাইয়্যিদাতুনা হযরত আন নূরুছ ছালিছাহ আলাইহাস সালাম উনার সম্মানিত বয়স মুবারক প্রায় ২০ বছর ছিলেন। সুবহানাল্লাহ! যা নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি সম্মানিত হিজরত মুবারক করার ২ বছর পর। সুবহানাল্লাহ!

উল্লেখ্য যে, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা, সাইয়্যিদাতুনা হযরত আন নূরুছ ছালিছাহ আলাইহাস সালাম তিনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহাসম্মানিতা লখতে জিগার মুবারক, উনার মহাসম্মানিতা বানাত (মেয়ে) আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মধ্যে তিনি হচ্ছেন ‘আছ ছালিছাহ তথা তৃতীয়া’। সুবহানাল্লাহ! উনার ফযীলত মুবারক হচ্ছেন, তিনি শুধু মহান আল্লাহ পাক তিনি নন এবং নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি নন; এছাড়া সমস্ত শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারক উনাদের অধিকারিণী হচ্ছেন তিনি। সুবহানাল্লাহ! উনার সম্মানিত মুহব্বত মুবারকই হচ্ছেন ঈমান। সুবহানাল্লাহ!

এখানে সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল আলামীন, উম্মু আবীহা সাইয়্যিদাতুনা হযরত আন নূরুছ ছালিছাহ আলাইহাস সালাম উনার মহাসম্মানিত জীবনি মুবারক থেকে কিছু আলোচনা তুলে ধরা হবে। ইনশাআল্লাহ!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে