সাইয়্যিদুনা হযরত যাবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনাকে কুল-কায়িনাতের সকলেই চিনতো এবং বৃক্ষরাজি উনাকে সিজদা করতো


এই সম্পর্কে সাইয়্যিদুনা হযরত যাবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম তিনি নিজেই উনার সম্মানিত আব্বাজান সাইয়্যিদুনা হযরত জাদ্দু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নিকট বর্ণনা করেন, وانى لاجلس فى المَوْضِعِ فأسمع فيه من تحتى سلام عليك أيها المُسْتَوْدِعُ ظهره نور محمد صلّى الله عليه وسلم وانى لاجلس فى الموضع اليَابِسِ أو تحت الشجرة اليَابِسَةِ فَتَخْضَرُ وتُلْقِى علىّ أغصانها فاذا قمت وتركتها عادت الى ما كانت فقال له عبد المطلب ابشريا بنى فانى أرجو أن يخرج الله من ظهرك المُسْتَوْدَعَ الْمُكَرَّمَ فانا قد وعدنا ذلك وانى رأيت قبلك رُؤْيَا كلها تدل على انه يخرج من ظهرك أكرم العالمين. অর্থ: “আর নিশ্চয়ই আমি যখন কোনো স্থানে বসি, তখন আমি সেখানে শুনতে পাই, আমার নিচ থেকে কে যেন বলছেন, আপনার উপর সালাম। হে সম্মানিত সংরক্ষণকারী! আপনার মাঝে নূরে হাবীবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি সম্মানিত অবস্থান মুবারক করছেন। সুবহানাল্লাহ! আর আমি যখন কোনো শুষ্ক স্থান অথবা শুকনো (বা মৃত) গাছের নিচে বসি, তখন উক্ত শুষ্ক স্থানটা সজীব হয়ে যায় আর শুকনো বা মৃত গাছটা সতেজ হয়ে যায়, প্রাণ ফিরে পায় এবং তার ডালপালাগুলো আমার দিকে ঝুঁকিয়ে দেয়। অর্থাৎ গাছ আমাকে সিজদা করে। সুবহানাল্লাহ! আর যখন আমি দাঁড়িয়ে যাই এবং তা ছেড়ে চলে যাই, তখন গাছ তার পূর্বের অবস্থায় ফিরে যায়। সুবহানাল্লাহ! তখন সাইয়্যিদুনা হযরত জাদ্দু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি উনার সম্মানিত আওলাদ সাইয়্যিদুনা হযরত যাবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনাকে বলেন, হে আমার সম্মানিত আওলাদ! আপনি সম্মানিত সুসংবাদ মুবারক গ্রহণ করুন। সুবহানাল্লাহ! নিশ্চয়ই আমি এটা আশা করছি যে, মহান আল্লাহ পাক তিনি আপনার থেকে পবিত্র সম্মানিত আমানত মুবারক তথা নূরে হাবীবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে বের করবেন অর্থাৎ আপনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত আব্বাজান হবেন। সুবহানাল্লাহ! কেননা আমরা তথা আমি এবং আমার পূর্বপুরুষ আলাইহিমুস সালাম আমরা সকলেই এই বিষয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছিলাম। সুবহানাল্লাহ! আর নিশ্চয়ই আমি আপনার পূর্বে (এই বিষয়ে) সমস্ত প্রকার নিদর্শন মুবারক দেখেছি। সুবহানাল্লাহ! যা প্রমাণ করে যে, নিশ্চয়ই আপনার থেকেই তথা আপনার মাধ্যমেই আকরামুল ‘আলামীন, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি সম্মানিত তাশরীফ মুবারক রাখবেন। অর্থাৎ আপনার মাধ্যমে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি মহাসম্মানিত বরকতময় বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করবেন। আর আপনি হবেন উনার সম্মানিত আব্বাজান আলাইহিস সালাম।” সুবহানাল্লাহ! (তারীখুল খমীস ১/১৮২)

 

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে