সাইয়্যিদুল কাওনাইন, সাইয়্যিদুছ ছাক্বালাইন, মাহবূবে এলাহী, মালিকুল জান্নাহ, মালিকুল কায়িনাত, আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, আবূ রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা হযরত যাবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার কতিপয় সম্মানিত লক্বব মুবারক এবং উনাদের অর্থ মুবারক (১)


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,
وَلِلّٰهِ الْاَسْـمَاءُ الْـحُسْنٰـى فَادْعُوْهُ بِـهَا
অর্থ: “মহান আল্লাহ পাক উনার অনেক সুন্দর সুন্দর সম্মানিত নাম মুবারক তথা সম্মানিত লক্বব মুবারক রয়েছেন, তোমরা উনাকে সেই সম্মানিত নাম মুবারক তথা সম্মানিত লক্বব মুবারক দ্বারা আহ্বান করো।” সুবহানাল্লাহ! (সম্মানিত সূরা আ’রাফ শরীফ: সম্মানিত আয়াত শরীফ ১৮০)
মহান আল্লাহ পাক তিনি যেমন অসীম, ঠিক তেমনিভাবে উনার সম্মানিত লক্বব মুবারক উনাদের সংখ্যাও অসীম। সুবহানাল্লাহ! অনুরূপভাবে মহান আল্লাহ পাক উনার হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত লক্বব মুবারক উনাদের সংখ্যাও অসংখ্য-অগণিত। এক কথায় তিনি শুধু মহান আল্লাহ পাক তিনি নন; এছাড়া সমস্ত সম্মানিত লক্বব মুবারক উনাদের অধিকারী, মালিক। সুবহানাল্লাহ! ঠিক একইভাবে আবূ রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা হযরত যাবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম তিনি শুধু মহান আল্লাহ পাক তিনি নন এবং নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি নন; এছাড়া যত সম্মানিত লক্বব মুবারক রয়েছেন, সমস্ত সম্মানিত লক্বব মুবারক উনাদের অধিকারী হচ্ছেন তিনি। সুবহানাল্লাহ! এখানে উনার কতিপয় সম্মানিত বরকতময় লক্বব মুবারক উল্লেখ করা হলো:
১. اَبُوْ رَسُوْل ِاللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ (আবূ রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম)Ñ নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহাসম্মানিত আব্বাজান আলাইহিস সালাম। সুবহানাল্লাহ!
২. اَهْلُ بَيْتِ رَسُوْلِ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ (আহলু বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম)- নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত আহলু বাইত শরীফ। সুবহানাল্লাহ!
৩. ذَبِيْحُ اللهِ (যাবীহুল্লাহ)- মহান আল্লাহ পাক উনার সম্মানিত যাবীহ মুবারক, মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য উৎসর্গীত, কুরবানীকৃত।
৪. اَلْاَبَرُّ (আল আর্বারু)- সর্বশ্রেষ্ঠ নেককার, সর্বোত্তম দ্বীনদার, ইহসানকারী, দানশীল।
৫. اَلْاَتْـقٰى (আতক্ব)- সর্বশ্রেষ্ঠ পরহেযগার, সর্বশ্রেষ্ঠ মুত্তাক্বী, সর্বোত্তম খোদাভীরু।
৬. اَلْاَجْوَدُ (আল আজওয়াদ)- সর্বশ্রেষ্ঠ দানশীল, সর্বশ্রেষ্ঠ দাতা।
৭. اَجْوَدُ النَّاسِ (আজওয়াদুন নাস)- মানুষের মাঝে সর্বশ্রেষ্ঠ দানশীল।
৮. اَلْاَجَلُّ (আল আজাল্লু)- মহিমান্বিত, সর্বাধিক সম্মানিত।
৯. اَلْاَحْسَنُ (আল আহ্সান)- সর্বোত্তম, সর্বশ্রেষ্ঠ, সর্বাধিক সৌন্দর্য মুবারক উনার অধিকারী।
১০. اَلْاَخْشٰى لِلّٰهِ (আল আখশা লিল্লাহ)- সর্বাধিক খোদাভীরু।
১১. اَلْاَرْحَمُ (আল আরহাম)- পরম করুণাময়, সর্বশ্রেষ্ঠ অনুগ্রহশীল।
১২. اَلْاَزْكٰـى (আল আয্কা)- সর্বাধিক পূত-পবিত্র, কায়িনাতের মাঝে সবচেয়ে পবিত্র।
১৩. اَلْاَزْهَرُ (আল আয্হার)- সবচেয়ে সুন্দর, ফুলের মতো সুন্দর উজ্জ্বলতর, মনোহর, হৃদয়কাড়া সৌন্দর্য মুবারক উনার অধিকারী।
১৪. اَلْاَشَدُّ حَيَاءً (আল আশাদ্দু হায়া’)- সর্বাধিক লজ্জাশীল।
১৫. اَلْاَصْدَقُ (আল আছদাকু)- পরম সত্যবাদী।
১৬. اَصْدَقُ النَّاسِ لَـهْجَة (আছদাক্বুন নাসি লাহ্জাহ)- মানুষের মাঝে পরম সত্যবাদী।
১৭. اَلْاَطْيَبُ (আল আত্বইয়াবু)- সর্বাধিক মর্যাদাবান, সবচেয়ে পবিত্র সর্বশ্রেষ্ঠ, সবচেয়ে সম্ভ্রান্ত।
১৮. اَلْاَعَزُّ (আল আ‘য়ায্যু)- সবচেয়ে সম্মানিত, সর্বাধিক ইজ্জত-সম্মান মুবারক উনাদের মালিক।
১৯. اَلْاَعْظَمُ (আল আ’যামু)- মানুষের মাঝে সবচেয়ে মহান।
২০. اَلْاَعْلـٰى (আল আ’লা)- সর্বোচ্চ মর্যাদা মুবারক উনার অধিকারী, সর্বশ্রেষ্ঠ বিজয়ী।
২১. اَلْاَعْلَمُ بِاللهِ (আল আ’লামু বিল্লাহ)- মহান আল্লাহ পাক উনার সম্পর্কে, উনার বিধি-বিধান সম্পর্কে যিনি সবচেয়ে বেশি জানেন।
২২. اَفْصَحُ الْعَرَبِ (আফছাহুল আরব)- আরবদের মাঝে সর্বাধিক বিশুদ্ধভাষী।
২৩. اَكْرَمُ النَّاسِ (আকরামুন নাস)- মানুষের মাঝে সবচেয়ে সম্মানিত, অনুগ্রহশীল, বেহিসাব নিয়ামত মুবারক বিতরণকারী।
২৪. اَلْاَمْـجَدُ (আল আমজাদ)- সর্বাধিক সম্মানিত, মর্যাদাবান, সম্ভ্রান্ত।
২৫. اَلْاِمَامُ (আল ইমাম)- সাইয়্যিদ।
২৬. اِمَامُ الْـخَيْرِ (ইমামুল খইর)- সমস্ত নেককার উনাদের ইমাম।
২৭. اِمَامُ الْمُتَّقِيْنَ (ইমামুল মুত্তাক্বীন)- সমস্ত মুত্তাক্বীগণ উনাদের ইমাম।
২৮. اِمَامُ النَّاسِ (ইমামুন নাস)- সমস্ত মানুষের ইমাম।
২৯. اَلْاَمَانُ (আল আমান)- সর্বদিক থেকে সর্ববিষয়ে সর্বোত্তম নিরাপত্তাদানকারী।
৩০. اَلاَوْلـى(আল আওলা)- সর্বাধিক নিকটবর্তী, সকলের জীবনের চেয়েও অধিক প্রিয়, সকলের সম্মানিত পিতা।
৩১. اٰيَةُ اللهِ (আয়াতুল্লাহ)- মহান আল্লাহ পাক উনার সম্মানিত নির্দশন মুবারক।
৩২. اَلْبَرُّ (আল র্বারু)- পরম দানশীল, সর্বশ্রেষ্ঠ ন্যায়পরায়ণ।
৩৩. اَلْبَهَاءُ (আল বাহা’)- সমস্ত উম্মতের জন্য সম্মান, মর্যাদা-মর্তবাদানকারী, সকলের সৌন্দর্য, জ্যোতি, দীপ্তি।
৩৪. اَلْبُرْهَانُ (আল বুরহান)- দলীল।
৩৫. اَلْبُشْرٰى (আল বুশরা)- সম্মানিত সুসংবাদ মুবারক।
৩৬. جَامِعُ النِّعْمَةِ وَالنِّسْبَةِ(জামি‘উন নি’মাতি ওয়ান নিসবাতি)- সমস্ত নিয়ামত ও নিবসত মুবারক উনার জামি’ বা মালিক।
৩৭. اَلْـجَلِيْلُ (আল জালীল)- মহামহিম, মহাসম্মানিত, মহাগৌরবময়, মহীয়ান।
৩৮. اَلْـجَوَّادُ (আল জাওওয়াদ)- মহান দাতা, সর্বশ্রেষ্ঠ দানশীল।
৩৯. اَلْـحَافِظُ (আল হাফিয)- সর্বোত্তম হিফাযতকারী, সর্বশ্রেষ্ঠ সংরক্ষণকারী, সর্বশ্রেষ্ঠ নিয়ামত মুবারক তথা নূরে হাবীবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে ধারণকারী।
৪০. اَلْـحَامِدُ (আল হামিদ)- সর্বোত্তম প্রশংসাকারী।
৪১. حَبِيْبُ اللهِ (হাবীবুল্লাহ)- মহান আল্লাহ পাক উনার হাবীব।
৪২. اَلْـحَلِيْمُ (আল হালীম)- পরম ধৈর্যশীল, মহাসহনশীল।
৪৩. حِزْبُ اللهِ (হিযবুল্লাহ)- মহান আল্লাহ পাক উনার সম্মানিত দল মুবারক, মহান আল্লাহ পাক উনার প্রতিনিধি।
৪৪. اَلْـحَقُّ (আল হাক্ব) সাইয়্যিদুনা যাবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম তিনি সত্য।
৪৫. اَلْـحَكِيْمُ (আল হাকীম)- মহাপ্রজ্ঞাবান, সমস্ত হিকমত মুবারক উনাদের মালিক।
৪৬. اَلْـحَلِيْمُ (আল হালীম)- মহাধৈর্য্যশীল, পরম সহনশীল।
৪৭. اَلْـحَـىُّ (আল হাই)- সম্মানিত রওযা শরীফ উনার মধ্যে জীবিত, মহান আল্লাহ উনার হাইয়্যুন তথা চিরঞ্জীব সম্মানিত ছিফত মুবারক উনার অধিকারী, মালিক। সুবহানাল্লাহ!
৪৮. اَلْـخَازِنُ لِـمَالِ اللهِ (আল খাযিনু লিমালিল্লাহ)- মহান আল্লাহ পাক উনার সম্মানিত মাল-সম্পদ মুবারক উনাদের মালিক, রক্ষক।
৪৯. اَلْـخَالِصُ (আল খ¦ালিছ)- খালিছ, পূত-পবিত্র।
৫০. اَلْـخَبِيْرُ (আল খ¦বীর)- মহাবিজ্ঞ, মহাবিচক্ষণ।
৫১. اَلْـخَلِيْلُ (আল খ¦লীল)- আখাচ্ছুল খাছ প্রিয়, আখাচ্ছুল খাছ মাহবূব।
৫২. خَلِيْلُ الرَّحْـمٰنِ (খ¦লীলুর রহমান)- মহান আল্লাহ উনার আখাচ্ছুল খাছ প্রিয়, মাহবূব।
৫৩. اَلْـخَلِيْفَةُ (খলীফা)- খলীফা, প্রতিনিধি।
৫৪. خَلِيْفَةُ اللهِ (খলীফাতুল্লাহ)- মহান আল্লাহ পাক উনার খলীফা, প্রতিনিধি।
৫৫. اَلْـخَيْرُ (আল খইর)- সর্বোত্তম, সর্বশ্রেষ্ঠ,
৫৬. خَيْرُ الْبَرِيَّةِ (খইরুল বারিয়্যাহ)- সৃষ্টিজগতের মাঝে সর্বোত্তম, সর্বশ্রেষ্ঠ।
৫৭. خَيْرُ النَّاسِ (খইরুন নাস)- মানুষের মাঝে সর্বশ্রেষ্ঠ, সর্বোত্তম।
৫৮. خَيْرُ الْعَالـمين (খইরুল আলামীন)- সমস্ত কায়িনাতের মাঝে সর্বশ্রেষ্ঠ, সর্বোত্তম।
৫৯. خَيْرُ خَلْقِ اللهِ (খইরু খলক্বিল্লাহ)- মহান আল্লাহ পাক উনার সৃষ্টিজগতের মাঝে, মাখলূকাতের মাঝে সর্বশ্রেষ্ঠ, সর্বোত্তম।
৬০. دَارُ الْـحِكْمَةِ (দারুল হিকমাহ)- সম্মানিত হিকমত মুবারক উনার ঘর মুবারক।
৬১. اَلذَّاكِرُ (আয যাকির)- সর্বোত্তম যিক্রকারী।
৬২. ذِكْرُ اللهِ (যিক্রুল্লাহ)- মহান আল্লাহ পাক উনার সম্মানিত যিক্র। অর্থাৎ সাইয়্যিদুনা হযরত যাবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম তিনি নিজেই যিকরুল্লাহ। সুবহানাল্লাহ!
৬৩. ذُو الْـخلق العظيم (যুল খুলক্বিল আযীম)- সর্বোত্তম সুমহান চরিত্র মুবারক উনার অধিকারী।
৬৪. ذُو السَّكِيْنَةِ (যুস সাকীনাহ)- সাকীনাহ, শান্তি, প্রশান্তি, ইতমিনান মুবারক উনাদের মালিক।
৬৫. ذُو الـصِّـرَاطِ الْمُسْتَقِيْمِ (যুছ ছিরাত্বিল মুস্তাক্বীম)- ছিরাতুল মুস্তাক্বীম উনার মালিক।
৬৬. ذُو الْعِزَّةِ (যুল ‘ইযযাহ)- সম্মানিত ইজ্জত মুবারক উনার মালিক।
৬৭. ذُو الْفَضْلِ (যুল ফাদ্বল)- সম্মানিত ফযল মুবারক উনার মালিক।
৬৮. ذُو الْكَرَامَةِ (যুল কারামাতি)- সম্মানিত কারামত মুবারক উনার মালিক।
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে