সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র জীবনী মুবারক-ধারাবাহিক।


সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র জীবনী মুবারক-ধারাবাহিক।
*********************************************************************
মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার পবিত্র কিতাব কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন।
والله ورسوله احق ان يرضوه ان كانو مؤمنين
অর্থ : যদি তোমরা মু’মিন হয়ে থাক তবে মহান আল্লাহ পাক এবং উনার হাবীব নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে সন্তুষ্ট কর; উনারা সন্তুষ্টি পাবার হকদার। (পবিত্র সূরা তওবা শরীফ, পবিত্র আয়াত শরীফ ৬২)
পূর্ব প্রকাশিতের পর —
***********************
সাইয়্যিদুল মুরসালীন ইমামুল মুরসালীন খাতামুন্যাবিয়্যিন নুরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আনুষ্ঠানিকভাবে নুবুওওয়াত প্রকাশ ও এতদসম্পর্কিত মু’জিযা শরীফ
সবস্থানে শব্দের সরাসরি শাব্দিক অর্থ গ্রহণ করা যাবে না। করলে কুফরী হবে। বরং সেক্ষেত্রে তা’বীলী বা ব্যাখ্যামূলক অর্থ গ্রহণ করা ফরয। যেমন উদাহরণস্বরূপ উল্লেখ করা যায় যে, মহান আল্লাহ পাক তিনি ‘সূরা বাক্বারা’-এর ৫৪নং আয়াত শরীফ-এ ইরশাদ করেন,
ومكروا و مكر الله و الله خير المكرين
এ আয়াত শরীফ-এর প্রকৃত বা সরাসরি অর্থ হলো- “আর কাফিরেরা ধোঁকাবাজী করলো, মহান আল্লাহ পাক তিনিও ধোঁকাবাজী করলেন, আর মহান আল্লাহ পাক তিনি হচ্ছেন উত্তম ধোঁকাবাজ।” নাউযুবিল্লাহি মিন যালিক!
এরূপ অর্থ যে কুফরীর অন্তর্ভুক্ত, এ ব্যাপারে কারোই কোনোরূপ দ্বিমত নেই। কারণ আমাদের আহলে সুন্নত ওয়াল জামায়াতের আক্বীদা মতে মহান আল্লাহ পাক তিনি مكر “মকর” বা ধোঁকাবাজী হতে সম্পূর্ণই পবিত্র। অথচ দুনিয়ার সকল লুগাত বা অভিধানসমূহেই (مكر) “মকর” শব্দের অর্থ “ধোঁকাবাজী” বলে উল্লেখ আছে।
ইমামুল লুগাবী, আল্লামা মুহিব্বুদদ্বীন, আবুল ফাইজ সাইয়্যিদ মুহম্মদ মুরতাজা আল হুসাইনী আল ওয়াসেত্বী আল যাবেদী আল হানাফী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার বিখ্যাত আরবী লুগাত “তাজুল আরুস মিন জাওয়াহিরিল কামুস”-এর ৩য় জিলদ ৫৪৮ পৃষ্ঠায় উল্লেখ করেন,
(المكر) الخديعة والاحتيال وقال الليث احتيال فى خفية …. وقال ابن الاثير مكر الله ايقاع بلائه باعدائه دون اوليائه.
অর্থ: مكر “মকর” শব্দের অর্থ হচ্ছে- ধোঁকাবাজী, প্রতারণা, ঠগবাজী। আবু লাইছ রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি বলেন, গোপন প্রতারণা। ….. হযরত ইবনুল আছীর রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি বলেন, মহান আল্লাহ পাক তিনি “মকর” করেছেন, একথার অর্থ হলো, তার শত্রুদের শাস্তি প্রদান করেছেন, বন্ধুদেরকে নয়।”
আব্দুস সালাম মুহম্মদ হারুন সংকলিত “মু’জামু মাক্বানীসুল লুগাত”-এর ৫ম জিলদ ৩৪৫ পৃষ্ঠায় উল্লেখ আছে,
(مكر) الميم والكاف والراء ….. الاحتيال.
অর্থ: “مكر শব্দের অর্থ হলো- প্রতারণা, ধোঁকাবাজী, ঠকবাজী।”
উপরোক্ত লুগাতী আলোচনা দ্বারা এটা সুস্পষ্টভাবেই প্রমাণিত হলো যে, مكر “মকর” শব্দের একাধিক অর্থের মধ্যে একটি অর্থ হচ্ছে “ধোঁকাবাজী।”
এখন প্রশ্ন হচ্ছে- কাফিরদের ন্যায় মহান আল্লাহ পাক উনার শানেও (মকর) শব্দের উক্ত অর্থ গ্রহণ করা জায়িয হবে কি?
মুলত, তা কশ্মিনকালেও জায়িয হবে না। কারণ তা মহান আল্লাহ পাক উনার শান ও ছহীহ আক্বীদার সম্পূর্ণই খিলাফ। তবে মহান আল্লাহ পাক উনার শানে “মকর” শব্দের অর্থ কি হবে? এ ব্যাপারে অনুসরণীয় মুফাসসিরীনে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিমগণ উনারা যে অর্থ বা ব্যাখ্যা প্রদান করেছেন তাই গ্রহণীয়।
(ইনশাআল্লাহ চলবে)
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে