সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নুরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র জীবনী মুবারক-ধারাবাহিক।


সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নুরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র জীবনী মুবারক-ধারাবাহিক।
**********************************************************************
পূর্ব প্রকাশিতের পর —
***********************
খলিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার সম্মানিত কিতাব কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন –
فَلاَ تَخْشَوْهُمْ وَاخْشَوْنِي وَلأُتِمَّ نِعْمَتِي عَلَيْكُمْ وَلَعَلَّكُمْ تَهْتَدُونَ
تَهْتَدُونَ
তোমরা কাফিরদেরকে ভয় করনা আমাকেই ভয় করো যাতে আমি তোমাদের জন্যে আমার অনুগ্রহ সমূহ পূর্ণ করে দেই এবং তাতে যেন তোমরা সরলপথ প্রাপ্ত হও। সম্মানিত সুরা বাক্বারা শরীফ উনার সম্মানিত আয়াত শরীফ ১৫০।

আখিরী রসূল, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আনুষ্ঠানিকভাবে নুবুওওয়াত প্রকাশ ও এতদসম্পর্কিত মু’জিযা শরীফ

হাদীছ শরীফ-এ আরো বর্ণিত রয়েছে,

قال حضرت أبو نعيم رحمة الله عليه فى الدلائل قال حضرت سعير بن سوادة العامرى رضى الله تعالى عنه. كنت عشيقا لعقيلة من عقائل الحى، أركب لها الصعب والذلول لاأبقى من البلاد مسرحا أرجو ربحا فى متجر إلا أتيته، فانصرفت من الشام بحرث وأثاث أريدبه كبة الموسم. ودهماء العرب، فدخلت مكة بليل مسدف فأقمت حتى تعرى عنى قميص الليل فرفعت رأسى فاذا قباب مسامتة شعف اجبال، مضروبة بأنطاع الطائف وإذ جزر تنحر وأخرى تساق، وإذا أكلة وحثثة على الطهاة يقولون الا عجلوا الا عجلوا، وإذا رجل يجهر على فشز من الارض، ينادى ياوفد الله ميلوا إلى النداء. وأنيسان على مدرجة يقول يا وفد الله من طعم فليرح إلى العشاء،
অর্থ: হযরত আবূ নায়ীম রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি ‘দালায়িল’ গ্রন্থে বর্ণনা করেন, হযরত সায়ির ইবনে সাওয়াদা আল আমিরী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি বলেন, একটি উন্নত জাতের উট আমার খুব প্রিয় ছিলো। সেই উটের পিঠে চড়ে ব্যবসার উদ্দেশ্যে আমি দূর-দূরান্ত সফর করতাম। একবার আমি ব্যবসার পণ্য নিয়ে সিরিয়া থেকে পবিত্র আরব দেশে আসি। সফর শেষে কোনো এক রাতে মক্কা শরীফ-এ এসে উপনীত হই। রাতের আঁধার কেটে জোছনা এলো। হঠাৎ মাথা তুলে আমি দেখতে পেলাম পাহাড়ের মতো উঁচু কয়েকটি তাঁবু। তাঁবুগুলো তায়েফের চামড়ায় ঢাকা। তারই পার্শ্বে কয়েকটি উট জবাই করা হলো আর কয়েকটি উট কোথায় যেন নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। সম্মুখের পাত্রে খাদ্যদ্রব্য রাখা। কয়েকজন লোক বলছেন, আপনারা তাড়াতাড়ি আসুন, আপনারা তাড়াতাড়ি আসুন। অপর এক ব্যক্তি এক উঁচু স্থানে দাঁড়িয়ে উচ্চস্বরে বলছেন, হে মহান আল্লাহ পাক উনার মেহমানগণ! আপনারা খেতে আসুন। কয়েকজন সিঁড়িতে দাঁড়িয়ে বলছেন, আপনাদের যাদের খাওয়া শেষ হয়েছে, চলে যান; আবার রাতের খাওয়ায় অংশ নিবেন। এসব দেখে আমার চোখ ছানাবড়া হয়ে গেলো।

(ইনশাআল্লাহ চলবে)

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে