সাপের ডিম


বিশিষ্ট সাহাবী হযরত হাবীব বিন ফদীক রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু কোন এক জায়গায় যাচ্ছিলেন। ঘটনাক্রমে উনার পা একটি বিষাক্ত সাপের ডিমের উপর পড়ে। এতে ডিমটি ফেটে যায় এবং এর বিষ ক্রিয়ায় হযরত হাবীব বিন ফদীক রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার চোখ একেবারে ঘোলা হয়ে যায় এবং দৃষ্টি শক্তি লোপ পায়।
এ অবস্থা দেখে উনার পিতা খুবই হতাশ হয়ে পড়লেন এবং উনাকে নিয়ে হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার খেদমতে হাজির হলেন।
হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনি সমস্ত ঘটনা শুনে উনার চোখে থুথু ‍মুবারক দিলেন।ফলে সঙ্গে সঙ্গে উনার চোখ পরিস্কার হয়ে গেল এবং দৃষ্টি শক্তি ফিরে পেলেন।
ঘটনা বর্ননাকারী বলেন, আমি স্বয়ং হযরত হাবীব বিন ফদীক রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু কে দেখেছি। ঐ সময়ে উনার বয়স হয়েছিল আশি বছর এবং চোখ একেবারে ঘোলাটে হয়ে গিয়েছিল কিন্তু হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার থুথু মুবারকের বদৌলতে দৃষ্টি শক্তি এত প্রখর হয়েছিল যে সুঁই এ সূতা গাঁথতে পারতেন।
(সুবহানাল্লাহ)
এ ওয়াকেয়া মুবারকটি তাদের আক্বীদায় পরিবর্তন আনবে বলে আশা করি যারা, হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে আমাদের মত মানুষ বলে। । হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার থুথু মুবারক দ্বারা অন্ধের দৃষ্টি শক্তি ফিরে আনতে সক্ষম আর তাদের থুথুর ব্যাপারে দেয়ালে লিখে দেয়া হয় যেখানে সেখানে থুথু ফেলবেন না, এর দ্বারা রোগ বিস্তার লাভ করে।
তাহলে রোগ আর শেফা উভয়টা কিভাবে বরাবর হতে পারে?
Views All Time
4
Views Today
8
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

  1. dr.faisal says:

    উত্তম ওয়াকেয়া মুবারক

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে