সাড়ে তিন হাত বডিতে ইসলাম নেই; এরাই সেজেছে মূফতী। ফতওয়া দিচ্ছে কাফির মত: সাইয়্যিদুল আইয়াদ শরীফ পালন করা বিদয়াত(নাউযুবিল্লাহ)


আমার পরিচিতদের মধ্যে অনেককে দেখা যায় খ্রিস্টানদের অনুসরন করে নিজের জন্মদিন পালন করে তথা কেক কেটে জন্মদিন পালন করে। এতে কারও আপত্তি থাকেনা। সবাই তখন খ্রিস্টানী সংস্ক্রতিতে একমত। তখন কেউ বিদয়াত বলছে না বা বিরতও থাকছে না। কাফিরদের মত নেচে গেয়ে ঠিকই জন্মদিন পালন করে।

কিন্তু মজার বিষয় হলো তাদেরকে যখন ঈদে মিলাদুন্নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিষয়ে বলা হয় তখন তারা দেদারসে ফতওয়া দেয় যে এটা পালন করা বিদয়াত। কুরআন শরীফ-হাদীছ শরীফ উনাদের কোথাও নেই বলে ফাকা বুলি আওড়ায়ে থাকে।

আমি তাদেরকে একদিন জিঙ্গেস করেছিলাম যে তোমরা যে খ্রিস্টানদের অনুকরনে কেক কেটে জন্মদিন পালন করলা-এটা কুরআন শরীফ-হাদীছ শরীফ উনাদের কোথায় আছে জানো কি? আরও বলি তোমরা যেভাবে জন্মদিন পালন করছো তাতে তোমাদের হাশর-নাশর তো খ্রিস্টানদের সাথে হবে তা কি জানো? তখন উত্তরে বলে এতো কিছু দেখার সময় নেই। ভাল লাগছে তাই বন্ধুরা মিলে কেক কেটে জন্মদিন পালন করছি; আর মজা করছি। একটু মজা ও আড্ডা না দিলে কি হয়?

উল্লেখ্য আপনারা শুধু আমার এই পরিচিতদের মধ্যেই এই নির্বোধ আচরন পাচ্ছেন তা কিন্তু নয়। আপনার চারপাশের মানুষেগুলোর দিকে তাকিয়ে দেখবেন যে তারা ২৪ টা ঘন্টা কাফিরদের মত পোশাক পরছে, দাড়ি রাখছে, ছবি তুলছে-ভিডিও করছে দেদারসে, বেপর্দা হচ্ছে, গান-বাজনা শুনছে, খেরাধুলা করছে, নেশা করছে, বাম হাতে দাড়িয়ে দাড়িয়ে খাচ্ছে। সাথে তারা ঠিকমত নামাজ পড়েনা, রোজা রাখেনা, দান-খয়রাত করে না, ওয়াজ-মাহফিলে যায় না, ইসলামী জ্ঞান শিক্ষা করে না , হারাম-হালালের তোয়ক্কা করে না ইত্যাদি।
কিন্তু হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার শান-মান আলোচনার বিষয় আসলে বা উনার কোনও বিষয়ে খুশি প্রকাশের কথা উঠলেই নিজেকে মুফতীর কাতারে নিয়ে যায়। দেদারসে ফতওয়া দেয় এগুলো কুরআন শরীফ-হাদীছ শরীফ উনাদের কোথাও নেই। এগুলো বিদয়াত। এইতো বাংলাদেশে মুসলমান নামধারী কাফিরদের আচরন।
স্মতর্ব্য যে এদের অন্তরে কাফিরদের মুহব্বত ১০০% থাকার জন্য ২৪ ঘন্টা কাফিরদের মত সেজে থাকছে। তখন ফরয-ওয়াজিব প্রসঙ্গ তুলছে না। কিন্তু ইসলামী বিষয়গুলো দলীল থাকার পরও দ্বিমত পোষন করছে। অথচ কাফিরদের সংস্কৃতি পালনের সময় কোন দলীল তলব করছে না।
সুতরাং এগুলো মুসলমান ছুরতে কাফিরদের গোলাম। এরা নিজের সাড়ে তিন হাত বডিতে ইসলাম দ্বারা পূর্ন করতে পারেনি। পেরেছে কাফিরদের সংস্কৃতি দ্বারা। আর এরাই সাজে মুফতী। হায়রে কাফিরের গোলামের দল!!! তোমরা কত নিকৃষ্ট তা কি ফিকির করো না? তোমাদের শিগ্রই হবে অপমানদায়ক শাস্তি। কোনও কাফির তোমাদের বাঁচাতে পারবে না।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+