সিরিয়াস কৌতুক


উগান্ডার মহারানী বেরিয়েছেন শিকারে। তিনি তাঁর মন্ত্রীদের জিজ্ঞাসা করলেন, ‘আজকে আবহাওয়ার পূর্বাভাস কী? ঝড়বৃষ্টি কি হবে?’
মন্ত্রীরা বলল, ‘জি না, আজ আবহাওয়া অত্যন্ত চমৎকার। ঝড়বৃষ্টি হওয়ার কোন সম্ভবনা নাই।’
রানী শিকারে চলেছেন। পথে দেখা একজন ধোপার সঙ্গে। রানীকে সে বলল, ‘মহারানী, আপনি যে সামনে এগোচ্ছেন, সামনে তো ঝড়বৃষ্টি হবে।’

রানী তার কথা শুনলেন না। এগোতে লাগলেন। খানিক পরে সত্যি সত্যি ঝড়বৃষ্টি শুরু হয়ে গেল।
রানী ফিরে এলেন। বললেন, ‘আবহাওয়ামন্ত্রীকে বরখাস্ত করো। ধরে নিয়ে এসো ওই ধোপাকে। ওকেই মন্ত্রী করব।’

ধোপাকে মন্ত্রী করা হল। রানী তাকে জিজ্ঞেস করলেন, ‘আচ্ছা, তুমি কেমন করে জানলে, সামনে ঝড়বৃষ্টি হবে?’
ধোপা বলল, ‘যখন ঝড়বৃষ্টি আসন্ন, তখন আমার গাধার কান নড়ে। তখন আমার গাধার কান নড়ছিল। সেটা দেখে আমি বুঝলাম, একটু পরেই ঝড়বৃষ্টি শুরু হবে।’

রানী বললেন, ‘তাহলে আর তোমাকে মন্ত্রী করব কেন? তুমি বরখাস্ত। যাও, নিয়ে এসো সেই গাধাকে। তাকেই আমি মন্ত্রী বানাব।’
অবশেষে গাধাকেই মন্ত্রী বানালেন তিনি।

রানীর মনে হটাৎ খায়েশ জাগল, একটা ডক্টরেট ডিগ্রী নেওয়া দরকার। ঘোড়ার পিঠে চড়ে মহারানী গেলেন ডিগ্রী কিনতে। বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে বললেন, ‘ একটা ডক্টরেট ডিগ্রী দিন। কত টাকা লাগবে?’

টাকাপয়সার লেনদেন হয়ে গেলে বিশ্ববিদ্যালয়টি তাকে পিএইচডি ডিগ্রি প্রদান করল। ডক্টরেট ডিগ্রি সঙ্গে নিয়ে রানী ঘোড়ার পিঠে চড়ে ফিরতে লাগলেন। হটৎ তার মনে হলো, টাকা দিলেই যদি ডিগ্রি পাওয়া যায়, তাহলে আমার ঘোড়াটার জন্যও তো একটা ডিগ্রি কেনা যায়। রানী আবার গেলেন বিশ্ববিদ্যালয়ে। বললেন, ‘এই নিন টাকা, আমার ঘোড়াটাকেও একটা পিএইচডি ডিগ্রি দিন।’ তখন কর্তৃপক্ষ জবাব দিল, ‘দুঃখিত, আমরা শুধু গাধাদেরই ডিগ্রি দিই, ঘোড়াদের দিই না।’

রানী দেশে ফিরে গাধা মন্ত্রীকে পিএইচডি ডিগ্রী নিতে পাঠালেন। গাধা সফলভাবে পিএইচডি ডিগ্রী সম্পন্ন করল। মহারানী খুশি হয়ে তাকে আবহাওয়া মন্ত্রী থেকে শিক্ষামন্ত্রীতে প্রমোশন দিলেন।

এরপর রানী চাইলেন, তার মতো দেশের জনগণও ডিগ্রী পাক, শিক্ষিত হোক। শিক্ষামন্ত্রীকে ব্যবস্থা নিতে বললেন, তার দেশের কেউ যেন ডিগ্রী বিনে না থাকে। ভিশন ২০২১ ঘোষণা করলেন।

আদেশ পেয়ে শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষকদের প্রশ্ন সহজ করতে বললেন। শিক্ষকেরা প্রশ্নপত্র সহজ করলেন। শিক্ষক ছাত্রকে প্রশ্ন করলেন, তোমার বাবার নাম কি? কিন্তু ছাত্র আরো সহজ চায়, দাবী জানালো চারটি অপশন দিন। চারটি অপশন দেওয়া হল, এ+ প্লাসের উৎসব বয়ে গেল। কিন্তু এরপরেও কিছু ছাত্র ফেল করে গেল।

মহারানী এই খবরে রেগেমেতে অস্থির। ক্ষতি সারাতে শিক্ষামন্ত্রী এবার পরীক্ষকদের নির্দেশ দিলেন, উত্তরপত্র সহজ করে দেখুন। যাহাই ৬৫ তাহাই আশি, যাহাই ১৩ তাহাই ৩৩।

এরপর প্রশ্ন আসল, আমি এ+ পেয়েছি, এর ইংরেজী কি?
ছাত্র উত্তর দিল, I am A+
মন্ত্রীর ফর্মুলায় এ+ এর বন্যা বয়ে গেল। কিন্তু তারপরও কিছু যায়গা শুকনো রয়ে গেল। ফলে আবার তলব শিক্ষামন্ত্রীকে।

শেষমেষ শিক্ষামন্ত্রী সিদ্ধান্ত নিলেন, এবার বাদ যাবেনা একটি শিশুও। শিক্ষামন্ত্রী প্রশ্ন ফাঁসের সুযোগ করে দিলেন। ইন্টারনেটের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ল প্রশ্ন, এইচএসসি, এসএসসি, জেএসসি এমনকি পিএসসির প্রশ্ন ফাঁস হতে লাগল। ছাত্ররাও প্রশ্নফাঁসে অভ্যস্ত হয়ে গেল, পরীক্ষার আগে বুক না পড়ে, ফেসবুকে প্রশ্ন খুঁজতেই হয়রান তারা। ইন্টারনেটে প্রশ্নের সাথে সাথে উত্তরও মিলতে লাগলো।

এবার পরীক্ষায় শিক্ষক এক ছাত্রকে জিজ্ঞেস করলেন, ১। তোমার বাবার নাম কি? ২। বাংলাদেশ স্বাধীনতায় কার কার ভূমিকা আছে?
ছাত্রটি উত্তর দিল, ১। ইয়াহিয়া খান ২। ৩০ লক্ষেরও বেশি মানুষের অবদান আছে, কতজনেরই বা নাম বলব। শিক্ষকেরা তাকে পাস করালেন।

সে ফেসবুকে প্রশ্ন ও উত্তরগুলো দিয়ে দিল। দ্বিতীয় ছাত্র এতকিছু মনে রাখতে পারে না। সে মুখস্ত করল প্রথম প্রশ্নের উত্তরঃ ইয়াহিয়া খান এবং দ্বিতীয় প্রশ্নের উত্তরঃ ৩০ লক্ষেরও বেশি মানুষের অবদান আছে, কতজনেরই বা নাম বলব।

শিক্ষক দ্বিতীয় ছাত্রকে জিজ্ঞেস করলেন, ১। বাংলাদেশ স্বাধীনতায় কার কার ভূমিকা আছে? ২। তোমার বাবার নাম কি?
ছাত্রটি উত্তর দিল, ১। ইয়াহিয়া খান ২। ৩০ লক্ষেরও বেশি মানুষের অবদান আছে, কতজনেরই বা নাম বলব। শিক্ষক বেহুঁশ হয়ে গেলেন, তিনি আজ অব্দি কোমায় আছেন।

কোমায় গেলেও শিক্ষকের প্রশ্ন উল্টানোর দায়ে শাস্তির দাবীতে অভিভাবকরা বিক্ষোভ ফেটে পড়ল। প্রশ্ন বদল, এতো সাক্ষাৎ জালিয়াতি। [goo.gl/pNtqme]

শিক্ষামন্ত্রীর তৎপরতায় ভিশন ২০২১ বাস্তবায়িত হল। ২০২১ সালের মধ্যে মানুষ, গাধা, বেড়াল, মুরগী, ছাগলসহ কোন গৃহপালিত পশু-পাখিই ডিগ্রীর এর আওতার বাইরে থাকল না। দেশের চাহিদা পূরণ করে বিদেশেও ডিগ্রী রপ্তানি করা হল।

কুশিক্ষায় অসামান্য অবদান রাখায় পার্শ্ববর্তী মনিব দেশ রুয়ান্ডায় শিক্ষামন্ত্রীকে পুরস্কৃত করা হল। [goo.gl/Vk3c4s]

সবাই সুখে শান্তিতে ডিগ্রী নিয়ে বসবাস করতে লাগল।

[উক্ত কৌতুকের সাথে জীবিত বা মৃত কারো সাথে মিল পেলে এতে একমাত্র দায়ী আপনি নিজেই]

COLLECTED

http://www.rtvonline.com/…/%E0%A6%B6%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A…

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে